আসন্ন ইউপি নির্বাচনে জনদরদী, গরিবের বন্ধু

বেলাল উদ্দিন বেলালকেই চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই চৌফলদন্ডীবাসী

Belal-Uddin-Belal-pic.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক
আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে এলাকার কৃতি সন্তান জনদরদী, বিপদের বন্ধু, গরিবের সুখ-দুঃখের সারথী মোঃ বেলাল উদ্দিন বেলালকেই চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই চৌফলদন্ডীবাসী। কক্সবাজর সদর উপজেলার প্রাকৃতিক সম্পদের ভরপুর জনগুরুত্বপুর্ণ চৌফলদন্ডী ইউনিয়ন। কিন্তু সদর উপজেলার অর্থনীতিতে অতি গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা রাখলেও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের অবহেলায় তেমন কাঙ্কিত কোন দৃশ্যমান উন্নয়ন হয়নি এ অভিমত স্থানীয়দের।
এখানকার স্থানীয় কৃষকদের উৎপাদিত লবণ দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানির সুযোগ রয়েছে। তবে ন্যায্য পাওনা থেকে আজ বি ত চৌফলদন্ডীর কৃষক। এখানাকার গণমানুষের কল্যাণে কাজ করতে গরীবের বন্ধু হিসেবে বেলালকেই প্রয়োজন বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।
গত কিছুদিন যাবৎ গণসংযোগকালে সাধারণ মানুষের ভালবাসায় সিক্ত একাত্তর পত্রিকার প্রকাশক ও বিশিষ্ট ঠিকাদার চৌফলদন্ডীর কৃতিসন্তান সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী মানবতার সেবক মোঃবেলাল উদ্দিন বেলাল তিনি বলেন, আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে স্থানীয় কৃষক ও ক্ষুদ্র ব্যাবসায়ীদের কল্যাণে বিশেষ প্রকল্প গ্রহণ করতে উদ্দ্যোগ নিবেন।
গত ২৬জানুয়ারী (মঙ্গলবাার) সিকদার পাড়া দারুল কোরান মাদ্রাসার বার্ষিক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তিনি বলেন, সাগরে মাছ ধরে যারা সংসার চালান কিংবা যারা শুটকি উৎপাদনে জড়িত অথবা যারা নাপ্পি উৎপাদনের সাথে জড়িত তাদের ব্যবসা কার্যক্রম সুন্দরভাবে পরিচালনা করতে সকল ধরনের সুযোগ সৃষ্টি করা হবে। এছাড়া অগ্রাধিকার ভিত্তিতে মসজিদ মাদ্রাসা উন্নয়নেও কাজ করা হবে বলে তিনি আশ্বস্থ করেন।
এ সময় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আল্লামা মুফতি ওবাইদুল্লাহ রফিক চাটগামী। বিশেষ বক্তার বক্তব্য রাখেন হযরত মাওলানা মুফতি ইউনুস, ইমাম জাফর আলম, মাওলানা নুরুল আবছার, হাফেজ আনিসুর রহমান। সভাপতিত্ব করেন আল্লামা মুফতি হাফেজ ছৈয়দ নুর, মাওলানা রফিক উদ্দিন, আলহাজ্ব আব্দুল হাকিম (সও) প্রমুখ। পরে মাদ্রাসার ৩য় থেকে ৪র্থ শ্রেণীতে উত্তীর্ণ ১ম,২য়,৩য়, ও ৪র্থ স্থান অর্জনকারীদের হাতে অনুষ্টানের প্রধান অতিথি বেলাল উদ্দিন বেলাল পুরস্কার তুলে দেন। অনুষ্টান পরচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মোঃ হোসেন।
অন্যদিকে গত ২৯জানুয়ারী (শুক্রবার) নতুন মহাল চারা বটতলা জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করার পর মুসল্লিদের উদ্দ্যেশ্যে বক্তব্য রাখার সময় তিনি বলেন, একটি আধুনিক, মানবিক, জনবান্ধব ও গতিময় ইউনয়ন পরিষদ গড়তে তিনি এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের অনুরুধে চেয়ারম্যান পার্থী হওয়ার জন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
এ সময় মুসল্লিদের পক্ষ থেকে মাষ্টার মনজুর আলম বলেন, বেলাল আমার ছাত্র সে সাধারণ গরিব ঘরের কাজ পাগল মানুষ। সে চেয়ারম্যান হয়ে সকল শ্রেণীর মানুষের সাথে একাকার হয়ে সকলের কল্যাণে কাজ করতে সুযোগ চান। সে প্রার্থী হলে আমরা সবাই তার পক্ষে কাজ করব। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট আওয়ামীলীগ নেতা জহিরুল ইসলাম, কক্সবাজার একাত্তর পত্রিকার সহ-সম্পাদক ও ঈদগাঁও থানা প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি নুরুল আমিন হেলালী, কক্সবাজার বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক নুরুল ইসলামসহ শতাধিক মুসল্লী।
বেলাল উদ্দিন বেলাল আরও বলেন, এলাকায় শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যাতায়াতসহ অনেক ক্ষেত্রে চাহিদামত উন্নয়ন হয়নি। তাই তিনি চেয়ারম্যান হয়ে চৌফলদন্ডীর সৌন্দর্য বন্ধন,পয়োনিষ্কাশন ও আধুনিক ইউনিয়ন হিসেবে গড়ে তুলতে চান।
স্থানীয় বাসিন্দা রহমত আলী বলেন বেলালকে আমরা ছোটবেলা থেকে চিনি ও জানি। তিনি যদি প্রার্থী হন তাহলে এলাকার সবাই তার পক্ষ হয়ে কাজ করব। কারন তিনি সাধারন পরিবারের সন্তান হিসেবে আমাদের মত গরীবদের দুঃখ দুর্দশা তিনিই সবেচেয়ে বেশী বুঝবেন। এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে আমরা তাকে প্রার্থী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছি। চেয়ারম্যান প্রার্থী বেলাল মুল্লীদের অনুরুধে এলাকার একটি নতুন মসজিদের নির্মাণ কাজ ঘুরে দেখেন এবং মসজিদের উন্নয়নে সরাবাত্বক সহযোগিতার আশ্বাস দেন। এছাড়া তিনি এলাকার দীর্ঘদিনের বিরোধ মিমাংসার জনং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের নিয়ে বিচার শালিসও করছেন।
বিগত একমাস যাবৎ বেলাল উদ্দিন বেলাল চৌফলদন্ডীতে এলাকার মানুষের সাথে মতবিনিময় করছেন। এবং বেলালকে কাছে পেয়ে এলাকাবাসীও খুশি বলে জানান, স্থানীয়রা। এলাকাবসীর মতে, চৌফলদন্ডীর উন্নয়নে সমবন্টনের জন্য বেলাল ভাইকে আমরা প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই। এছাড়া বেলাল কয়েকদিন পরপর এলাকায় আসছেন এবং সকলের খোঁজ খবর নিচ্ছেন। তার আচার-আচরনে সাধারন মানুষ সন্তুষ্ট।

আপনার মন্তব্য লিখুন