বিশ্বে বাংলাদেশ বন্ধুহীন হয়ে পড়েছে : জি এম কাদের

japa-1.jpg

আজ শনিবার দুপুরে রাজধানীর বারিধারায় দৈনিক যুগান্তর ভবন মিলনায়তনে জাতীয় যুব সংহতির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের। ছবি : সংগৃহীত

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী  দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জি এম) কাদের বলেছেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী কয়েকটি দেশ সফর করে করোনার টিকা না পেয়ে দেশে এসে গভীর হতাশা প্রকাশ করেছেন। গণমাধ্যমের সামনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ধনী দেশগুলো নাকি বাংলাদেশকে টিকা দিতে রাজি হচ্ছে না। যদি তাই হয় তাহলে, বিশ্বে বাংলাদেশ বন্ধুহীন হয়ে পড়েছে।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ১৯৯৬ সালে পাসপোর্টভিত্তিক জরিপে বাংলাদেশের অবস্থান ছিলো ৯৬তম। একই জরিপে বাংলাদেশের অবস্থান নিম্নগামী হতে হতে বর্তমানে ১০৬তম অবস্থানে এসেছে।

জি এম কাদের বলেন, বিশ্বে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদের মর্যাদা বাড়তে পারে কিন্তু সাধারণ মানুষের মর্যাদা মোটেই বাড়েনি, বরং কমেছে। তাই এখন বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে কেউ দেশের বাইরে গেলে তাকে নানা রকম হয়রানীর শিকার হতে হচ্ছে। তিনি বলেন, দেশের মানুষ আবারও জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্রক্ষমতায় দেখতে চায়।

জাতীয় যুব সংহতির আহ্বায়ক ও জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান, সাবেক সংসদ সদস্য এইচ এম শাহরিয়ার আসিফ সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় যুব সংহতির যুগ্ম আহ্বায়ক মো. হেলাল উদ্দিন, মো. সাইফুল ইসলাম, শেখ সারোয়ার হোসেন, দ্বীন ইসলাম শেখ, ওয়াশির রহমান দোলন, হারুন আর রশিদ, নেয়াজ আলী ভূঁইয়া, শফিকুল ইসলাম দুলাল, মুশফিকুর রহমান, সদস্য মো. জসিম উদ্দিন, অ্যাডভোকেট মাঈন উদ্দিন মাঈনু, জিয়াউর রহমান বিপুল, মো. আবদুল হান্নান, মিজানুর রহমান দুলাল, শরিফুল ইসলাম শরিফ, মাহমুদ আলম, জাফর আহমেদ রাজু, সাজিদ রওশন ঈশান, গাজী এম এ সালাম, মোবারক হোসেন তপু, জাকির হোসেন, আবুল কালাম আজাদ টুলু, আরিফুল ইসলাম রুবেল, কাজী শাহিন, মাহফুজুর রহমান মাফুজ, শাহিন আলিম, শওকত আকবর, এরশাদুজ্জামান ডলার, আবু সাদেক বাদল, আলমগীর হোসেন, মিজানুর রহমান, সালাম হাওলাদার, সোহাগ, গোলাম মোস্তফা, বেলায়াত হোসেন খান জুয়েল, ওমর আলী খান মান্নাফ, অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন বায়জিদ, আনোয়ার হোসেন সোহেল, নজরুল ইসলাম।

আপনার মন্তব্য লিখুন