বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা জাতি ডাচদের উচ্চতা কমছে

50db94ed1c76b603cd0ef13de2e7db17.jpg

গড় উচ্চতায় বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষের দেশ নেদারল্যান্ডস। কিন্ত সেই ডাচদেরই উচ্চতা কমে যাচ্ছে। ডাচ গবেষকরাই জানিয়েছেন এ তথ্য।

যদিও গত ১০০ বছরে উচ্চতা বৃদ্ধির হিসেবে এখনও বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা জাতি ডাচরাই। কিন্তু সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, তাদের বর্তমান প্রজন্ম আগের প্রজন্ম থেকে খাটো হয়ে যাচ্ছে।

গবেষণায় দেখা গেছে, ১৯৮০ সালে জন্ম নেওয়া পুরুষদের চেয়ে ২০০১ সালে জন্ম নেওয়া পুরুষরা উচ্চতায় ১ সেন্টিমিটার (.৩৯ ইঞ্চি) খাটো। আর নারীদের ক্ষেত্রে এই পার্থক্য আরও বেশি, ১ দশমিক ৪ সেন্টিমিটার (.৫৫) ইঞ্চি।

গবেষণায় বলা হয়েছে, ১৯৮০-র প্রজন্মই সম্ভবত সবচেয়ে লম্বা ছিল। ওই সময় নেদারল্যান্ডসে জন্ম নেওয়া পুরুষদের গড় উচ্চতা ছিল ১৮৩ দশমিক ৯ সেন্টিমিটার (৬ ফুট)। তারা ১৯৩০ সালে জন্ম নেওয়াদের চেয়ে ৮ দশমিক ৩ সেন্টিমিটার (৩ দশমিক ২৭ ইঞ্চি) বেশি লম্বা ছিল।

১৯৮০ সালে জন্ম নেওয়া নারীরাও উল্লেখযোগ্যরকম লম্বা ছিল। তাদের উচ্চতা ছিল ১৭০ দশমিক ৭ সেন্টিমিটার (৫ ফুট ৬ ইঞ্চি)। আর ১৯৩০ সালে জন্ম নেওয়া নারীদের উচ্চতা ছিল ১৬৫ দশমিক ৪ সেন্টিমিটার (৫ ফুট ৪ ইঞ্চি)।

‘স্ট্যাটিসটিকস নেদারল্যান্ডস, মিউনিসিপ্যাল হেলথ সার্ভিস’ (জিজিডি) এবং ‘ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর পাবলিক হেলথ’ (আরআইভিএম)- এর যৌথ গবেষণায় নেদারল্যান্ডসে জন্ম নেওয়া ১৯ থেকে ৬০ বছর বয়সী সাত লাখ ১৯ হাজার মানুষের ওপর গবেষণা চালিয়ে এবং ১৯ বছর বয়সীদের গড় উচ্চতা খতিয়ে দেখে এ চিত্র পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।

তুলনামূলক খাটো জাতিগোষ্ঠী থেকে আসা অভিবাসীদের সংখ্যা বেড়ে যাওয়া ডাচদের গড় উচ্চতা কমার জন্য আংশিক দায়ী, বলছেন গবেষকেরা। তবে যাদের বাবা-মা উভয়েরই জন্ম নেদারল্যান্ডসে তাদের উচ্চতাও কমছে। এমনকি যারা চার প্রজন্ম ধরে নেদারল্যান্ডসে আছেন, তাদের ক্ষেত্রেও এ প্রবণতা দেখা যাচ্ছে।

তা ছাড়া, যেসব ডাচ পুরুষের পরিবারে অভিবাসনের ইতিহাস নেই তাদের উচ্চতাও এ সময়ের মধ্যে বাড়েনি। আবার অভিবাসনের ইতিহাস না থাকা এমন ডাচ পরিবারের নারীদের উচ্চতাও কমেছে।

তবে নেদারল্যান্ডসের সব এলাকার চিত্র একইরকম নয়। দেশটির উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের মধ্যে বড় ধরনের পার্থক্য আছে। নেদারল্যান্ডসের দক্ষিণাঞ্চলের তুলনায় উত্তরের বাসিন্দারা তিন থেকে সাড়ে তিন সেন্টিমিটার বেশি লম্বা।

আপনার মন্তব্য লিখুন