পেকুয়ায় দোকান কর্মচারীকে অপহরণ চেষ্টা, জনতার হাতে আটক-১

pekua-opohoron.jpg

নিজস্ব প্রতিনিধি :

কক্সবাজারের পেকুয়ায় জাফর মাঝি (৪৫) নামে চায়ের দোকানের কর্মচারীকে পিটিয়ে অপহরণ চেষ্টা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এসময় ওই কর্মচারীর মালিক নুরুল হোছাইনের দোকান ভাংচুর করে ব্যাপক ক্ষতি করা হয়।

আহত জাফর মাঝি একই ইউনিয়নের চড়ি পাড়া এলাকার আছদ আলীর ছেলে ও বামুলা পাড়া ষ্টেশনের নুরুল হোছাইনের চায়েের দোকানের কর্মচারী।

স্থানীয়রা এগিয়ে এসে অপহরণকারীদের প্রধান জয়নালকে গণ-ধোলাই দিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য আবদুল মান্নানসহ চৌকিদারদের কাছে হস্তান্তর করলেও অন্যরা পালিয়ে যায়।

আহত জাফর মাঝিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (৯ নভেম্বর) দুপুর ২টায় উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের বামুলা পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জনতার হাতে আটক অপহরণকারীর প্রধান জয়নাল বদি উদ্দিন পাড়ার মৃত এরশাদ আলীর ছেলে বলে জানা গেছে।

অপহরণ চেষ্টার শিকার আহত জাফর মাঝি অভিযোগ করে বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই বদিউদ্দিন পাড়ার মৃত এরশাদ আলীর ছেলে জয়নাল প্রকাশ সুদি জয়নালের নেতৃত্বে ডাকাত মনিরুজ্জামান, বাবুল, এনাম, সুজাঙ্গীর,কাইছার ও সুন্দরী পাড়া এলাকার বদি আলমের ছেলে হুমায়ন আমার কর্মস্থল চায়ের দোকানে এসে বন্দুক ও দেশীয় অস্ত্রে ভয় দেখিয়ে মারধর করে সিএনজিতে তুলে নিয়ে যাবার সময় বামুলা পাড়ার পশ্চিমে ডাবল ব্রীজের কাছাকাছি পোঁছলে আমার আর্তচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আমাকে উদ্ধার করে।

ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে পেকুয়া থানার ওসি সাইফুর রহমান মজুমদার বলেন, ঘটনার বিষয়ে জেনেছি। তবে এখনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন