তুরস্ক-গ্রিসে ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২৬

images-2-10.jpeg
দিসিএম ডেস্ক।
এজিয়ান সাগরে গতকাল শুক্রবার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানায় তুরস্ক ও গ্রিসে অন্তত ২৬ জনের প্রাণহানি হয়েছে। ভূমিকম্পের কারণে অনেক ভবন ধসে যায় এবং কর্তৃপক্ষের ভাষায় ‘খুদে সুনামি’ সৃষ্টি হয়। সংবাদমাধ্যম সিএনএন এ খবর জানিয়েছে।

তুরস্কের কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভূমিকম্পে দেশটির পশ্চিমাঞ্চলে উপকূলীয় এলাকায় ২৪ জন নিহত হয়েছে। এ ছাড়া গ্রিসের সামোস দ্বীপে দেয়াল ধসে দুই কিশোর বয়সী ভাইবোন নিহত হয়।

তুরস্কের ইজমির শহরের মেয়র টান্‌ক সোয়ার জানিয়েছেন, তাঁর শহরে অন্তত ২০টি ভবন ভূমিকম্পে ধসে পড়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া বিভিন্ন ছবিতে দেখা গেছে, ধসে পড়া ভবনের নিচে যানবাহন চাপা পড়েছে এবং মানুষ ধ্বংসস্তূপে আটকেপড়া ব্যক্তিদের উদ্ধারের চেষ্টা করছে।

তুরস্কের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা জানিয়েছে, ভূমিকম্পে আহত হয়েছে অন্তত ৮০৩ জন। উদ্ধারকারী দল আটকেপড়াদের হেলিকপ্টারসহ নানাভাবে উদ্ধারের চেষ্টা করেন।

মার্কিন ভূ-তাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএস জানিয়েছে, রিখটার স্কেলে ৭ মাত্রার ভূমিকম্পটি গ্রিসের সামোস দ্বীপের নিয়ন কারলোভাসিয়ন শহর থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে উৎপত্তি হয়েছে। তবে তুরস্কের কর্তৃপক্ষ বলছে, ৬ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। অন্যদিকে, গ্রিসের ভূমিকম্প জরিপ সংস্থা বলছে, ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল ৬ দশমিক ৭।

এ ছাড়া তুরস্কের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা জানিয়েছে, ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর মোট ১৯৬ বার ঝাঁকুনি বা ‘আফটারশক’ অনুভূত হয়। এর মধ্যে ২৩ বার চার মাত্রার ঝাঁকুনি রেকর্ড করা হয়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন