টেকনাফে “নারীর চোখে বাংলাদেশ“ বিষয় সচেতনতা ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত

-3.jpg

কক্সবাজারের টেকনাফে এজাহার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে ট্রাভেলেটস অফ বাংলাদেশ ভ্রমণ কন্যা কর্তৃক আয়োজিত “নারীর চোখে বাংলাদেশ“ বিষয়ে সচেতনতা ক্যাম্পাইন অনুষ্ঠিত হয়েছে। (আজ)  শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত টেকনাফ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন ও এজাহার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার নুরুল আবছারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা পরিবার-পরিকল্পনা ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা চিকিৎসক টিটু চন্দ্র শীল, চিকিৎসক প্রণয় রুদ্র, ট্রাভেলেটস অফ বাংলাদেশ-ভ্রমণকন্যার প্রতিষ্ঠাতা চিকিৎসক সাকিয়া হক, নারীর চোখে বাংলাদেশের চট্টগ্রামের জোন লিডার মুনতাহা রুম্মান, শামসুন নাহার, প্রতিরক্ষা সম্পাদক আছমা আক্তার, ফারহানা ইসলাম ফারহি, কক্সবাজার জেলার লিডার তাওহীদা ইসলাম,কক্সবাজার জেলার স্বেচ্ছাসেবক মাসকুরা ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

“নারীর চোখে বাংলাদেশ” স্লোগান নিয়ে সারাদেশ চষে বেড়াচ্ছেন ভ্রমণ বিষয়ক ফেসবুক পেজ ট্রাভেলেটস অফ বাংলাদেশ-ভ্রমণকন্যার । এবার কক্সবাজারের টেকনাফে তারা। (আজ) গতকাল শুক্রবার সকালে উপজেলার এজাহার সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে আসেন এ কন্যারা। এখানকার ৫০জন শিক্ষার্থীদের নিয়ে নারীর ক্ষমতায়ন, বয়ঃসন্ধিকালীন সমস্যা, স্বাস্থ্য সচেতনতা ও পরিচ্ছন্নতা, খাদ্য ও পুষ্টি সুরক্ষার কৌশল, মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, পর্যটন কেন্দ্রগুলোর ইতিহাস ও ঐতিহ্য তুলে ধরে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আলোচনা ও ভিডিও প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করেন তারা। নারী জাগরণের বার্তা নিয়ে বাংলাদেশ সম্পর্কে শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন বয়সী মানুষকে ধারণা দিতে দেশের বিভিন্ন জেলায় ভ্রমণ করছেন এ কন্যারা।

চিকিৎসক টিটু চন্দ্র শীল বলেন, বয়ঃসন্ধিকালীন নারীদের স্বাস্থ্যের বিভিন্ন ধরনের সমস্যার-সমাধানে খোলামেলা আলোচনায় অনেকেই অনেক কিছু জানতে পেরেছেন। ইউএনও মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, এই উদ্যোগের জন্য তাদের সাধুবাদ জানায়। শিক্ষার্থীদের সচেতনতা করতে বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ,আত্নরক্ষা, বয়স সান্ধকালীন সমস্যা, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে কিভাবে করা যায় তা উদ্বুদ্ধ করা হয়। এর আগে দেশের ৬৪টি জেলায় ট্রাভেলেটস অব বাংলাদেশ-ভ্রমণকন্যারা কাজ করেছিলেন। তবে এবার তাঁরা দেশের প্রতিটি উপজেলায় কাজ করতে টেকনাফ থেকে শুরু করেছেন। ওই দলের নেত্রী চিকিৎসক সাকিয়া হক বলেন, ‘সর্বত্রই আমরা মানুষের কাছ থেকে সুব্যবহার ও কাঙ্ক্ষিত সহায়তা পেয়েছি। আমাদের মূল উদ্দেশ্য দেশ, দেশের মানুষ ও স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানা। বিশেষ করে, নারীদের সামনে এগিয়ে চলতে উদ্বুদ্ধ করার চেষ্টা চালাচ্ছি। কীভাবে দেশ দেখতে, চলতে, মানুষের সঙ্গে মিশতে হয়; সেই ব্যাপারে আমাদের অভিজ্ঞতা বিনিময়ের চেষ্টা করেছি আমরা। নিরাপদ সড়ক, বাল্যবিয়ে, বয়সন্ধিঃকালীন দৈহিক মানসিক পরিবর্তন ও সমস্যা এবং আত্মরক্ষার বিষয়গুলো তাদের সামনে তুলে ধরা হচ্ছে।’

আপনার মন্তব্য লিখুন