জিয়াউর রহমানের ‘বীরোত্তম’ খেতাব বাতিলের অধিকার কারো নেই- লুৎফুর রহমান কাজল

FB_IMG_1613313287099.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:
শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের বীরোত্তম খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিক্ষোভ সমাবেশ আয়োজন করেছে কক্সবাজার জেলা বিএনপি।
রোববার বিকাল ৪টায় জেলা বিএনপির কার্যালয় চত্বরে এই বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য শাহজাহান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক এম মোকতার আহমদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত উক্ত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির মৎস্যজীবি বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য লুৎফুর রহমান কাজল।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে লুৎফুর রহমান কাজল বলেন, জিয়াউর রহমানই এদেশের মুক্তিযুদ্ধের সূচনা করেন। কার খেতাব আপনারা বাতিল করতে চান? এই জিয়াউর রহমান এদেশের মুক্তিযুদ্ধের প্রথম সেক্টর কমান্ডার, প্রথম ফোর্স জেডফোর্সের কমান্ডার। তাঁর অর্জিত খেতাব বাতিলের অধিকার কারও নেই।

জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের প্রতিবাদ জানিয়ে লুৎফুর রহমান কাজল আরো বলেন, দেশটা স্বাধীন হয়েছে যুদ্ধে। সেই একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে, সেই যুদ্ধের অপর নাম জিয়াউর রহমান। যুদ্ধে মানেই জিয়া। দেশপ্রেম মানেই জিয়া, বহুদলীয় গণতন্ত্র মানেই জিয়াউর রহমান।

সভাপতির বক্তব্যে শাহজাহান চৌধুরী বলেন, জিয়াউর রহমানের খেতাব নিয়ে আমরা ব্যবসা করি না’ গর্ববোধ করি, উৎসাহিত হই। জিয়ার খেতাব বাতিলের মতো হীন উদ্দেশ্য থেকে সরে আসুন। না হয় দেশের মানুষ জেগে উঠবে’ প্রতিবাদে ফেটে পড়বে।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি এটিএম নূরুল বশর চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এড. শামীম আরা স্বপ্না, সহ-সভাপতি ও পৌর বিএনপির সভাপতি রফিকুল হুদা চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, জেলা যুবদলের সভাপতি এড. সৈয়দ আহমদ উজ্জল, সাধারণ সম্পাদক জিসান উদ্দীন জিসান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক এড. ইউনুছ, জেলা মৎস্যজীবি দলের সদস্য সচিব মোস্তফা কামাল, জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আমীর আলী, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রাসেদুল হক রাসেল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম সম্পাদক আবছার কামাল, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এড. মনির উদ্দীন মনির, সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি সরওয়ার রোমন, পৌর যুবদলের যুগ্ম-আহŸায়ক মাস্টার জসিম উদ্দীন, জেলা যুবদলের যোগযোগ বিষয়ক সম্পাদক দোলন ধর।
এসময় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন