আমেরিকা ইজ ব্যাক, প্রথম ভাষণে বাইডেন

yuktraassttr.jpg

মার্কিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মীদের উদ্দেশে বক্তৃতা করেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ছবি : রয়টার্স

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেন তাঁর প্রথম কূটনৈতিক ভাষণে বৈশ্বিক মঞ্চে আমেরিকা ফিরে এসেছে বলে ঘোষণা করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দেওয়া ওই ভাষণে বাইডেন পররাষ্ট্রনীতিতে নতুন যুগের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

মার্কিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে দেওয়া প্রথম ভাষণে বাইডেন বলেন, ‘আমেরিকা ইজ ব্যাক’ (আমেরিকা আবার ফিরে এসেছে)। প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর প্রথম স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মীদের উদ্দেশে বক্তৃতা করেন বাইডেন। সেখানেই এই ঘোষণা দেন তিনি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা ৪৫ মিনিটে ওয়াশিংটনে মার্কিন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সদর দপ্তর হ্যারি এস ট্রুম্যান বিল্ডিংয়ে এ ভাষণ দেন বাইডেন।

 

 

এ ভাষণে ইয়েমেনে সৌদি আরবের যুদ্ধকে যুক্তরাষ্ট্র আর সমর্থন করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন বাইডেন। সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধানের পথ খোঁজা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বাইডেন বলেন, ‘ছয় বছর ধরে ইয়েমেনে সৌদি আরব যে লড়াই চালাচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্র সেই লড়াইয়ে সৌদি আরবকে আর সাহায্য করবে না। বরং শান্তিপূর্ণ পদ্ধতিতে কীভাবে মীমাংসার পথ বের করা যায়, সেই চেষ্টা চালানো হবে।’

ওই ভাষণে রাশিয়ার আগ্রাসী নীতি মেনে নেওয়া হবে না বলেও স্পষ্ট জানিয়ে দেন বাইডেন। আমেরিকানদের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের আগ্রাসী নীতি মেনে নেওয়ার মনোভাব ছাড়তে হবে বলেও জানান তিনি।

এ ছাড়া মার্কিন অর্থনীতিকে যেভাবে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে চীন ও যেভাবে বিভিন্ন ক্ষেত্রে মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে তারা, আমেরিকার কাছে তার জবাবদিহি করতে হবে বলেও জানান বাইডেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন