চট্টগ্রামে সেনাবাহিনীর বিনামূল্যের ‘এক মিনিটের বাজার’

army-bazar-213414.jpg

চট্টগ্রামে চালু হলো সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রিত ১ মিনিটের বাজার। মাত্র ৬০ মিনিটে এক হাজারের বেশি মানুষ বিনামূল্যে চালসহ নিজেদের প্রয়োজনীয় বাজার থেকে পণ্য তুলে নিলেন । চলতি মাসের মধ্যে অন্তত ২০ হাজার অসহায় মানুষ এই সুবিধার আওতায় আসবে। একজন এক মিনিট সময় পেয়েছেন তার বাজার নিতে।

সেনাবাহিনী জানিয়েছে, করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি এড়ানোর পাশাপাশি গ্রামীণ অর্থনীতিকে সচল রাখতেই এই উদ্যোগ।

পুরোপরি সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে সকাল ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে মাত্র এক ঘণ্টায় এক হাজারের বেশি অসহায় মানুষ নিয়ে গেছে তাদের পছন্দনীয় বাজার। যেখানে টেবিলে সাজানো ছিল চাল-আলুসহ নানা ধরণের সবজি। বাদ ছিলো না মাস্ক এবং সাবান’ও। নগরীর জমিয়াতুল ফালাহ জাতীয় জামে মসজিদের বিশাল চত্বরে পরিকল্পিতভাবে সাজানো হয় পুরো বাজার।

বাজারে ঢুকতে সবাইকে আগে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে জীবানুমুক্ত করা হয়েছে। এরপর প্রথম টেবিলেই রাখা ছিল মাস্ক এবং বাজারের ব্যাগ। বাকি সব টেবিলে সাজানো নানা ধরণের সবজি। অসহায় মানুষগুলো’ও নিজেদের পছন্দনীয় সবজি ভরে নিচ্ছেন ব্যাগে।

৩৪ ইঞ্জিনিয়ারিং কনষ্ট্রাকশন ব্রিগেড মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আহমেদ তানভীর মাজাহার সিদ্দিকী বলেন, আমরা এটা কোনো ত্রাণ কার্যক্রম করছি না, এটা একটা মডেল দাঁড় করাচ্ছি।

গত এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে প্রস্তুতি চলছিল এই এক মিনিটের বাজার কার্যক্রম শুরুর। নানাভাবে যাছাই-বাছাই করে ১ হাজার জনের তালিকা তৈরি করা হয়। এভাবে চলতি মাসে আরো কয়েকটি বাজার বসাবে সেনাবাহিনীর এই ইউনিট।

৩৪ ইঞ্জিনিয়ারিং কনষ্ট্রাকশন ব্রিগেড উপ মহাপরিচালক কর্নেল আবুল হাসনাত মোহম্মদ সায়েম বলেন, আমরা সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে এসব কিনে এনেছি এতে তারাও লাভবান হবে।

আঘোষিত লকডাউনের কারণে আয়-উপার্জন বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেকটা বিপর্যকর অবস্থায় ছিল এই মানুষগুলো। আর তাই বিনামূল্যে পছন্দনীয় সবজি পেয়ে তারাও উচ্ছ্বসিত। এর মধ্যে শারীরিক প্রতিবন্ধী ছিল তুলনামূলক বেশি।

এক মিনিটের নিয়মিত সবজি বাজার ছাড়াও আরো তিনটি ঈদ বাজারের মাধ্যমে সাধারণ মানুষদের কাপড়সহ নানা উপকরণ তুলে দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে সেনাবাহিনীর ৩৪ কনষ্ট্রাকশন ব্রিগেড।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top