শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতের আহ্বান জামায়াতের

11d14434-f9e4-458c-b221-7c55dc3ea0c0.jpg

জাগো নিউজ

পোশাক শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামী।
বুধবার (২৯ এপ্রিল) সংগঠনটির সেক্রেটারি জেনারেল ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে করোনাভাইরাস ক্রমেই বিস্তার লাভ করছে। পরীক্ষা যত বাড়ছে, ততই করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে। চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীরাও আক্রান্ত হচ্ছেন। ইতিমধ্যেই ৭২৯ জন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরাও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। এর থেকে করোনা সংক্রমণের ভয়াবহতা অনুমান করা যায়।

অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার বলেন, করোনার জন্য দেশে দীর্ঘদিন যাবত লকডাউন চলছে। ফলে মানুষের জীবনে নেমে এসেছে দুর্দশা। অর্থনীতিতে নেমে এসেছে ধস। করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনীতির ভয়াবহতা বিবেচনা করে পোশাক কারখানাগুলো খুলে দেয়া হয়েছে। গণমাধ্যমের প্রচারিত তথ্য অনুযায়ী, দেড় হাজারের বেশি বস্ত্র ও পোশাক কারখানা খোলা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সব কারখানা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছেন কারখানার মালিকগণ। কারখানার শ্রমিকদের জীবনের নিরাপত্তার স্বার্থে আমরা স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়ে আসছি।

তিনি বলেন, আমরা মনে করি, মানুষের জীবনের গুরুত্ব সবচেয়ে বেশি। এক্ষেত্রে শ্রমিকদের স্বাস্থ্যের নিরাপত্তাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিতে হবে। আন্তর্জাতিক শ্রমসংস্থা শ্রমিকদের কাজে ফেরানোর ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছে। কারখানাগুলোতে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। আমরা উদ্বিগ্ন যে, এখনও শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়ে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়নি। করোনাভাইরাস সংকট উত্তরণে শ্রমিক-মালিক ও সরকারের সমন্বিত উদ্যোগ থাকা দরকার বলে আমরা মনে করি।

জামায়াতের এ নেতা আরও বলেন, শ্রমিকদের নিরাপদে কাজে ফেরা, প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা এবং প্রয়োজনীয় সামাজিক সুরক্ষা, বিনামূল্যে ব্যক্তিগত সুরক্ষামূলক সরঞ্জাম (পিপিই) সরবরাহ করার মাধ্যমে কারাখানার শ্রমিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যবস্থা নিশ্চিত করার জন্য আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top