বায়ুদূষণে কমছে আয়ু

air.jpg

সর্বব্যাপী বায়ুদূষণে মানুষের আয়ু কমছে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, বায়ুদূষণের কারণে বিশ্বে মানুষের আয়ু গড়ে প্রায় তিন বছর কমছে। একই কারণে প্রতিবছর ৮৮ লাখ (৮ দশমিক ৮ মিলিয়ন) অকালমৃত্যুর ঘটনা ঘটছে।

বায়ুদূষণ নিয়ে কার্ডিওভাসকুলার রিসার্চ জার্নালে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। আজ মঙ্গলবার বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়।

গবেষণা প্রতিবেদন বলছে, অণুর বিষাক্ত ককটেল ও তেল-গ্যাস-কয়লা পোড়া থেকে সৃষ্ট যেসব কণা ফুসফুসে আটকে থাকে, তা দূর করার মাধ্যমে পুরো এক বছরের আয়ুষ্কাল পুনরুদ্ধার করা যায়।

প্রধান গবেষক হোস লিলিভেল্ড বলেন, তামাক সেবনের চেয়েও বায়ুদূষণ জনস্বাস্থ্যের জন্য একটা বড় ঝুঁকির বিষয়। তবে জীবাশ্ম জ্বালানির স্থলে পরিবেশবান্ধব নবায়নযোগ্য জ্বালানি প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে এই ঝুঁকি অনেকাংশেই এড়ানো সম্ভব।

গবেষণায় দেখা গেছে, অকালমৃত্যুর কারণগুলোর মধ্যে ম্যালেরিয়ার চেয়ে বায়ুদূষণে বছরে ১৯ গুণ বেশি মৃত্যু হয়। এইচআইভি/এইডসের চেয়ে বায়ুদূষণে হয় ৯ গুণ বেশি মৃত্যু। আর অ্যালকোহলের চেয়ে বায়ুদূষণে হয় ৩ গুণ বেশি মৃত্যু।

গবেষণা প্রতিবেদনের জ্যেষ্ঠ লেখক থমাস মুনজেল বলেন, ‘আমাদের গবেষণার ফল বলছে, বায়ুদূষণ মহামারির মতো ছড়িয়ে পড়বে। তবে বায়ুদূষণ প্রতিরোধযোগ্য।’

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top