কাতারের চোখ কক্সবাজারের মহেশখালীতে

coxsbazar-moheshkhali-matarbari-lng-terminal1.jpg

কক্সবাজারের মহেশখালীর মাতারবাড়িতে বাংলাদেশে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) টার্মিনাল নির্মাণে আগ্রহ দেখিয়েছে কাতার। ইতিমধ্যে এজন্য আহবান করা টেন্ডারে দরপত্রও জমা দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের ধনী এই দেশটি।

কাতারের জ্বালানি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী সাদ সারিদা আল কাফি বুধবার (৩০ অক্টোবর) বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদের সঙ্গে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করে এ আগ্রহের কথা জানান।

মাতারবাড়ি এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণে মোট ১২টি দরপত্র পড়েছে। এ প্রসঙ্গে নসরুল হামিদ বলেন, ‘তারা (কাতার) এলএনজি পাওয়ার প্ল্যান্টে ইনভেস্টমেন্ট করবে, কেবল তাই নয়। তার সাথে গ্যাসও নিতে চায় এবং তাছাড়া তারা টার্মিনাল তৈরি করতে চায়। একটা বড় ইনভেস্টম্যান্ট ফর এ লং টাইম।’

পরে নসরুল হামিদ বলেন, ‘কাতার সরকার বিশেষ করে এনার্জি সেক্টরে বিনিয়োগ করতে চায়। পায়রাতে বিনিয়োগ নিয়ে আসতে চাচ্ছে, পায়রাতে তারা ল্যান্ডবেইজ এলএনজি টার্মিনাল করতে চায়। ইতিমধ্যে মাতারবাড়িতে যে এলএনজি টার্মিনাল হতে যাচ্ছে, যেটার জন্য টেন্ডার করা হয়েছে, সেখানেও কাতার দরপত্র জমা দিয়েছে। সে বিষয়েও তারা আলোকপাত করেছে। এলএনজি বেইজ পাওয়ার প্ল্যান্ট এবং এলএনজি সাপ্লাইসহ তারা পুরো প্যাকেজে বিনিয়োগ করতে চায়।’

কাতারের জ্বালানি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, “আমি তাদেরকে বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুযোগগুলো বলেছি। তাদেরকে বলেছি যে ইকোনোমিক জোন থেকে শুরু করে অনেক ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে। কাতারের প্রতিমন্ত্রী কথা দিয়েছেন উনি দেশে যাওয়ার পরে সবার সঙ্গে বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করবেন।’

বিনিয়োগের জন্য তারা এখন বাংলাদেশকে সবচেয়ে সম্ভাবনাময় দেশ হিসেবে ভাবছে বলেও জানান নসরুল হামিদ।

আপনার মন্তব্য লিখুন
Top