৩দিন সাগরে ভেসে ফিরে আসল কুতুবজোমের জেলে রফিক

IMG_20180926_215954.jpg

আবুল বশর পারভেজ , মহেশখালী :

১৫দিন পরে ৩দিন সাগরে ভেসে আসা পর এফবি ওহাব নামের ফিশিং বোটের সঠিক সন্ধান দিলেন কুতুবজোমের জেলে রফিক।২৫ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় কুলে ফিরে আসা রফিক ১৭ মাঝি মাল্লা নিখোঁজের ঘটনায় ফিরে আসা একজন জেলে। তার বাড়ী কুতুবজোম পূর্ব পাড়ার মমতাজ মাঝির পুত্র।মহেশখালী পৌরসভার গোরকঘাটার সিকদার পাড়া এলাকার রশিদ আহাম্মদ বহদ্দার এর মালিকানাধীন এফবি ওহাব নামের একটি ট্রলার ১৭জন মাঝিমাল্লা নিয়ে সাগরে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোজ হয়। নিখোজ জেলে পরিবারে কান্নার রোল পড়েছে। সাগরে বাতাসের কবলে পড়ে ফিশিং ট্রলার টি ইঞ্জিন বিকল হয়ে আর কুলে ফিরে আসে নি। ১৭সেপ্টেম্বর থেকে ফিশিং বোটটির সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ পাওয়া সম্ভব হয়নি।১১সপ্টেম্বর মহেশখালী পৌরসভার সাবেক কমিশনার রশিদ বহদ্দারের মালিকানাধীন এফবি ওহাব নামের ফিশিং বোটটি ১৭জন মাঝি মাল্লা থেকে রফিক নামে জেলেটি ফিরে আসলেও এখনো ১৬জন জেলে কোন সন্ধান নেই। কুতুবজোম এলাকার মোঃ জালাল প্রকাশ কলু মাঝির সাথে এফবি ওহাব নামের ফিশিং বোটটিতে দক্ষিন পুটিবিলা এলাকার মৃত আব্দুর রশিদ এর পুত্র নুরুল আবছার, মৃত সোলেমানের পুত্র জাফর আলম প্রকাশ জাফনী, বিভিন্ন এলাকার সলিম উল্লাহ, ইসলাম, রশিদ উল্লাহ, শাকের উল্লাহ, মোঃ করিম ও মোঃ জকির এর নাম পাওয়া গেলে ও বাকি মাঝিমাল্লার নাম ফিশিং বোটের মালিক বলতে পারে না।নিখোঁজ জেলেদের সন্ধান চেয়ে বোট মালিকের নিকট দাবী জানালে এখনো কোন সন্ধানের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বলে অভিযোগ তুলেন নিখোজ জেলের পরিবার। নিখোজ জেলে পরিবারকে দেখতে যাওয়া কথা দিয়েছে মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জামিরুল ইসলাম। তিনি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ধর্য্য ধারনের আহবান জানান।

আপনার মন্তব্য লিখুন