সৌদি থেকে ফিরে আসলেন ৬২ নারী শ্রমিক

Hospital-cox-768x480-9.jpg

নিউজ ডেস্ক।।

তিক্ত অভিজ্ঞতা আর দুর্বিষহ যন্ত্রণা নিয়ে সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরেছেন ৬২ জন নারী শ্রমিক। রাতে সৌদি এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান তারা। পরিবারের আর্থিক সচ্ছলতার আশায় বিভিন্ন সময় তারা আরব দেশে পাড়ি জমালেও তাদের চোখে মুখে এখন হতাশার ছাপ।

পরিবারের আর্থিক সচ্ছলতা ফেরাতে সৌদি আরবে পাড়ি জমানো নারী শ্রমিকরা বিভিন্ন সময় নানা নির্যাতন ও হেনস্তার শিকার হয়ে ফিরে আসছেন দেশে।

মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাতেও সৌদি এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে দেশে ফেরেন ৬২ জন নারী। যাদের বেশিরভাগই কয়েক মাস আগে কাজ করতে সৌদি আরব গিয়েছিলেন। কিন্তু নির্যাতনের মুখে ফিরে আসতে বাধ্য হন নিজ দেশে।

দেশে ফিরে আসা এক নারী বলেন, পাঁচ মাসের মধ্যে এক মাসের বেতন দিয়েছে। বেতন চাইলে মারধর করতো, খেতে দিত না।

আরেকজন বলেন, এক মাসের বেতন দিয়েছে। তারপর আর কোন কিছুই দেয়নি। খালি হাতেই আসতে হয়েছে।

আরেক নারী যা বললেন তা রীতিমতো আঁতকে ওঠার মতো। ‘বেতন চাইলেই গায়ে গরম পানি ঢেলে নির্যাতন করে। আমরা দেশের মা-বোন, তাই নিজেদের বাঁচাতে চলে আসতে হয়েছে।’

সৌদি সরকারের সঙ্গে অভিবাসন চুক্তি অনুযায়ী, দেশটিতে নারী শ্রমিকরা কাজ করতে গেলেও তাদের ফিরে আসার সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তা ও তদারকির অভাবকেই দায়ী করছে বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাক।

ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম ম্যানেজার এ.বি.এম ফরহাদ আল করিম বলেন, ‘৬২ জন নারীকর্মী চলে আসছে। এরা প্রত্যেকেই কোন না কোনভাবে অ্যাবিউসের শিকার হয়েছে। কেউ শারীরিকভাবেও অ্যাবিউস হয়েছে।

ব্র্যাকের তথ্যমতে, গতবছর নির্যাতনের শিকার হয়ে দেশে ফিরেছেন আড়াই হাজার নারীকর্মী। আর চলতি বছর গত দু’মাসে ফিরেছেন প্রায় ৩শ’ জন।

আপনার মন্তব্য লিখুন