শেখ হাসিনার আশীর্বাদ নিয়ে ফিরছে জাফর; চলছে সংবর্ধনার প্রস্তুতি

IMG_20181025_165810.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চকরিয়া-পেকুয়া আসনে নৌকার মনোনয়ন নিশ্চিতে অবশেষে সবুজ সংকেত পেয়েছেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম। গতকাল ২৪ অক্টোবর দুপুরে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করে তাঁর আর্শীবাদ নিয়েছেন উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর। ওইসময় আওয়ামীলীগ সভানেত্রী ও সরকার প্রধান শেখ হাসিনা একাদশ নির্বাচন উপলক্ষে চকরিয়া-পেকুয়া আসনে তাকে দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিতের ব্যাপারে চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলমকে আশ্বাস দিয়েছেন বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাফর আলম নিজে। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী তাকে চকরিয়া-পেকুয়া আসনে নৌকার বিজয় নিশ্চিতে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানান জাফর আলম।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাত শেষে আগামীকাল শুক্রবার ঢাকা থেকে চকরিয়া ফিরছেন উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলম। তাকে বরণ করতে চকরিয়া, পেকুয়া উপজেলা ও মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা এবং চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগ সহযোগি সংগঠনের উদ্যেগে সর্বস্তরের জনগনের পক্ষ থেকে সংবর্ধনার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাত শেষে অনুভুতি প্রকাশ করে চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম বলেন, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ‘মমতাময়ী নেত্রী শেখ হাসিনা চকরিয়া-পেকুয়া আসনে আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেন। কিন্তু শরীক দল জাতীয় পাটিরকে (এরশাদ) আসনটি দেয়ার কারনে ওইসময় দলের সভানেত্রীর নির্দেশে আমি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিই। তখন সভানেত্রী আমাকে ডেকে আশ্বস্ত করেছিলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনে আমাকেই মনোনয়ন দেবেন। অবশেষে ‘মমতাময়ী নেত্রী’ কথা রেখেছেন। একাদশ নির্বাচনে আমাকে মনোনয়ন দেয়ার আশ^াস দিয়েছেন। একই সঙ্গে কাজ করে যেতে নির্দেশও দিয়েছেন।

চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম বলেন, ‘আমি আওয়ামী লীগের রাজনীতির হাল ধরার পর থেকেই দলের জন্য নিবেদিত হয়েই কাজ করেছি। ২০১৪ সালের দশম নির্বাচন পরবর্তী সময়ে সারা দেশের মতোই চকরিয়া-পেকুয়াতে ব্যাপক নাশকতার পরিকল্পনা নিয়ে বিএনপি ও জামায়াত-শিবির যে অপতৎপরতা শুরু করেছিল, তা নেতাকর্মীদের নিয়ে কঠোরভাবে দমন করেছি।’

তিনি বলেন, ‘আমি আশা করি, একাদশ সংসদ নির্বাচনে চকরিয়া-পেকুয়ার আপামর জনতা ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে দেখিয়ে দেবে আসলে এই আসনটি কোনো দিনই বিএনপির দুর্গ ছিল না। শুধু প্রার্থীর কারণেই বারবার হোঁচট খেতে হয়েছে দলকে।’

গতকাল দুপুরে চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলমের ফেসবুক ফেইজ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাত পরবর্তী চকরিয়া পেকুয়া আসনে দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিতের ব্যাপারে অনুভুতি তুলে ধরার পর চকরিয়া-পেকুয়ায় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উচ্ছ্বাস সৃষ্টি হয়। ওইসময় নেতাকর্মীরা যার যার ফেসবুক থেকে দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে বিভিন্ন ধরণের আনন্দবার্তা দেন। এমনকি বিভিন্ন স্থানে দলের নেতাকর্মীরা একে অপরকে মিষ্টি খাইয়ে দেন। উপজেলা চেয়ারম্যান চেয়ারম্যানের পরিবারে শোকারনা নামাজও পড়েন অনেকে।

আপনার মন্তব্য লিখুন