শিশু সায়মার বাসায় আফরোজা আব্বাস

Presentation1-9.jpg

ধর্ষণের পর হত্যার শিকার শিশু সামিয়া আফরিন সায়মার পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিএনপির নেতারা।

মঙ্গলবার (০৯ জুলাই) সকাল ১১:৪৫ মিনিটের সময় ওয়ারীর বনগ্রাম রোডের শিশু সায়মার বাসায় জাতীয়তাবাদী মহিলা দল কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি আফরোজা আব্বাস তাদের বাসায় যান।

শিশু সায়মার পরিবারের সাথে দেখা করেন এবং সার্বিক বিষয়ে কথা বলেন। কথা বলেন সেদিন ঘটনা সম্পর্কে ও তখন শিশু সায়মার মা আফরোজা আব্বাসকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙে পরেন।

দুই মেয়ের মধ্যে সায়মা ছোট তাকে হারিয়ে মা প্রায় পাগল । ঠিক মত যেন কথা বলতে পারছেন না । প্রায় অনেকক্ষণ কথা হয় সায়মার আত্মীয়স্ব-জনদের সাথে।

আফরোজা আব্বাস বলেন, এ দেশে এমন ভাবে ধর্ষণ বেড়েছে, তাতে করে বৃদ্ধা থেকে শিশু পর্যস্ত নিরাপদ না। বিচার না হওয়ার কারনেই আজ এমন নির্মম ঘটনা প্রতিনিয়ত হচ্ছে । যা আমাদের সমাজে নেতিবাচক প্রভাব পরছে। আমরা সায়মার হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি ।

জাতীয়তাবাদী মহিলা দল কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সাথে ছিলেন দোহার উপজেলা পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, মহিলা দল কেন্দ্রীয় সংসদের সদস্য শামীমা রাহিম শীলা ও শাহজাহানপুর থানা মহিলা দলের সভানেত্রী শাহিদা মির্জা ।

উল্লেখ, ৫ জুলাই সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সায়মা ঘরে ফিরে না এলে তার পরিবারের লোকজন তাকে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। পরে বাড়ির নবম তলার উত্তর পাশের ফ্ল্যাটের মেইন গেটের দরজা খোলা দেখে সায়মার বাবা আবদুস সালাম সেখানে গিয়ে মেয়ের স্যান্ডেল দেখতে পান।

আরও খোঁজাখুঁজির পর ওই ফ্ল্যাটের কিচেনে সিঙ্কের নিচে গলায় শক্ত করে পাটের রশি দিয়ে পেঁচানো অবস্থায় দেখতে পান। সায়মার পরনের হাফ প্যান্টটি সামনের দিকে ছেঁড়া ও গোপনাঙ্গ ছিল রক্তাক্ত। পরে পুলিশ এসে সায়মার লাশ বের করে। পরদিন শিশুর বাবা আবদুস সালাম বাদী হয়ে ওয়ারী থানায় অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন