শহরে জোড়াখুনের মামলার আসামী মঈন উদ্দিন গ্রেপ্তার

Screenshot_20210609-002922.jpg

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার শহরের চাঞ্চল্যকর ডাবল মার্ডার মামলার এজাহারভূক্ত ৪ নম্বর আসামী মঈন উদ্দিন (১৮) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সন্ত্রাসী মঈন উদ্দিন শহরের দক্ষিণ রুমালিয়ারছড়াস্থ সমিতি বাজার এলাকার জিয়াউর রহমানের ছেলে। রোববার ৬ জুন রাতে কক্সবাজার শহরের কলাতলী’র একটি রিসোর্টে শহর পুলিশ ফাঁড়ির একটি টিম অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে। শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ৩১ মে দক্ষিণ রুমালিয়ারছড়াস্থ সিকদার বাজার এলাকায় আশু আলী ও রায়হান বাহিনীর মধ্যে গোলাগুলির ঘটনায় আশু আলী গ্রুপের হাতে রায়হান বাহিনীর প্রধান রায়হান ও তার সহযোগি শাহেদ নিহত হয়। এই জোড়া খুনের ঘটনায় নিহত শাহেদুল হকের পিতা শহরের পশ্চিম টেকপাড়া নিবাসী ফজলুল হক বাদী হয়ে করা মামলার এজাহার নামীয় ৪ নাম্বার আসামী গ্রেপ্তার হওয়া মঈন উদ্দিন। সে আশু আলী বাহিনীর অন্যতম সদস্য। আশু আলীর বিরুদ্ধে হত্যা, মাদক, নারী নির্যাতন ও অস্ত্রসহ ডজন খানেক মামলা রয়েছে। গ্রেফতারকৃত মঈন উদ্দিন’কে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান-শহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) আসামী মঈন উদ্দিন এর বিরুদ্ধে আদালতে রিমান্ড আবেদন করেছেন বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ মে সন্ধ্যায় কক্সবাজার শহরের দক্ষিণ রুমালিয়ার ছরা সিকদার বাজারে কুখ্যাত সন্ত্রাসী আশরাফ আলী প্রকাশ আশু আলী-তারেক গ্রুপের সাথে সন্ত্রাসী রায়হান গ্রুপের মধ্যে সশস্ত্র সংঘর্ষে শাহেদুল হক ও মোহাম্মদ রায়হান নামক ২ জন সন্ত্রাসী নিহত এবং হাসান নামক ১ জন গুরতর আহত হয়। নিহত গ্রুপ প্রধান মোহাম্মদ রায়হান সহ ২ জনই রায়হান গ্রুপের সদস্য বলে জানা গেছে। নিহত মোহাম্মদ রায়হান শহরের দক্ষিণ রুমালিয়ার ছরা বাঁচামিয়ার ঘোনার নুরুল আলমের পুত্র।

আপনার মন্তব্য লিখুন