‘মানুষ কি মানুষের শরীরে এইভাবে হাতুড়ি চালাতে পারে?’

unnamed-5.jpg

জাহিদ হাসান : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলন করতে গিয়ে তরিকুল নামে এক শিক্ষার্থী ছাত্রলীগের হাতুড়ি পেটার শিকার হয়ে এখন হাসপাতালে কাতরাচ্ছে। কী নির্মম হাতুড়ি পেটা। হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে তরিকুলের পায়ের হাড় ও পাজরের হাড় ভেঙে দেয় ছাত্রলীগ কর্মীরা।
হাড় ভাঙার এক্সরে রিপোর্ট ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর সবাই তরিকুলের প্রতি অসহায়ত্ব ও ছাত্র লীগের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেকেই।

ক্ষোভ প্রকাশ করেন প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক আনিসুল হক। শুক্রবার তিনি তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেন, আমি কোনোদিন এক্সরে প্লেট দেখে ধরতে পারিনি, ভাঙাটা কোথায়। কিন্তু এই প্লেটে কী ভীষণভাবে হাড়গুলো ভাঙা। আমার মন ভেঙে গেছে। অযুত নিযুত মানুষের মন ভেঙে গেছে। ভাঙা হাড় হয়তো জোড়া লাগানো যাবে, কিন্তু অযুত মানুষের হৃদয় কি আর জোড়া লাগবে?

মানুষ কি মানুষের শরীরে এইভাবে হাতুড়ি চালাতে পারে? মানুষ? মা নু ষ?

মানুষ মানুষ হয়েছে সে হাতিয়ার বা যন্ত্র আবিষ্কার করেছিল বলে। কিন্তু হাতিয়ারের এই ব্যবহার মানুষের ইতিহাসকে পেছনে টানছে। বন থেকে মানুষ একবার গৃহবাসী হয়েছিল, এখন আবার আমরা জঙ্গলে ফিরে যাব?
গুটি কয়েক অমানুষের কারণে?
মানুষেরা জাগবে না?
মানুষের বিবেক জাগবে না?

অমানুষেরা ভেঙে চলবে মানুষের মানবিকতা আর মনুষ্যত্ব আর মানুষ-পরিচয়ের হাড়গোড় অস্থিমজ্জা?

আপনার মন্তব্য লিখুন