বওঁত জনর মার বুক হালি গইরজ্যি, আঁই ডঁর অপরাধী

jk.jpg

দিসিএম

‘বওঁত জনর মার বুক হালি গইরজ্যি, আঁই ডঁর অপরাধী। অভাই তোঁয়ারা অন্ধকার জগতত আর ন থাইক্ক্য। তোঁয়ারা আঁরনান যারা ডাকাইত আছ তারা তারাতারি অন্ধকার জগতত্তুন আঁয় জগোই, আত্মসমরপন গর।’
এভাবে কথাগুলো বলেন মহেশখালীর জলদস্যু আনজু বাহিনীর প্রধান আনজু।
২০ অক্টোবর মহেশখালী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে আত্মসমর্পন করার পর জলদস্যু নেতা আনজু তার জীবনের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে আরো বলেন, জীবনে অনেক মানুষের ক্ষতি করেছি, অনেক মায়ের বুক খালি করেছি, অনেককে স্বামী হারা করেছি। এসব অপকর্ম করতে গিয়ে নিজের জীবনকে নিজের পরিবার থেকে বিসর্জন দিয়েছি। পরিবার পরিজন ছেড়ে পাহাড়ে, গুহায়, পানিতে দিনের পর দিন কাটিয়েছি। আইন শৃংখলা বাহিনীর ভয়ে পালিয়ে ফেরারি জীবন যাপন করেছি। এই জীবন অন্ধকারের জীবন কষ্টের জীবন। এই জীবন থেকে নতুন জীবন দান করার জন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানাই।
এখনো যারা আত্মসমর্পন করেনি তাদের প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, অন্ধকার জগতথেকে চলে আসার সরকার যে সুযোগ দিয়েছে এই সুযোগ গ্রহন করে সবাই আত্মসমর্পন কর। এতে নিজের জীবন যেমন নিরাপদ হবে তেমনি পরিবার পরিজনদের সাথে সানন্দে জীবন যাপন করা যাবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন