পেকুয়া প্রেসক্লাব সভাপতি ছফওয়ানুল করিমকে মিথ্যা মামলায় জড়ানোয় সাংবাদিকদের নিন্দা

IMG_20190116_024118.png

পেকুয়া প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও পাক্ষিক পেকুয়ার সম্পাদক মো. ছফওয়ানুল করিমের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দেয়ায় নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছেন চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকগণ।

গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তারা দাবি করেন, দৈনিক আজাদীর পেকুয়া প্রতিনিধি ও পাক্ষিক পেকুয়ার সম্পাদক পরিচ্ছন্ন সাংবাদিক ছফওয়ানুল করিমকে হয়রানিমূলকভাবে আওয়ামী লীগের অফিস পুড়ানো ও তাদের সাধারণ সম্পাদককে হত্যাচেষ্ঠা মামলায় আসামি করা হয়েছে।

তারা বলেন, সত্যকে ধামাচাপা দিতেই সাংবাদিকদের মুখ বন্ধ করার কৌশল নিয়েছে একটি পক্ষ। আর তাই একজন নিষ্ঠাবান সাংবাদিককে মিথ্যা ও গায়েবি মামলায় আসামি করা হয়েছে।

সাংবাদিকরা জাতির বিবেক হিসেবে কাজের স্বাধীনতা ও নিরপেক্ষতা বজায় রেখে সমাজের অসঙ্গতি, অন্যায় অবিচার তুলে ধরবেন উল্লেখ করে বিবৃতিতে বলা হয়, হামলা মামলা করে সাংবাদিকদের কলম বন্ধ করা যায় না। বরং এ দমন কৌশল তাদের জন্য বুমেরাং হবে।

বিবৃতিতে অবিলম্বে সাংবাদিক ছফওয়ানুল করিমের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়।

বিবৃতিদাতা সাংবাদিকরা হলেন চকিরয়া প্রেস ক্লাবের সভাপতি আবদুল মজিদ (দৈনিক মানবকন্ঠ/হিমছড়ি), সহ-সভাপতি রায়হান চৌধুরী (আমাদের অর্থনীতি), সাধারণ সম্পাদক একেএম বেলাল উদ্দিন (ভোরের ডাক), সহ-সাধারণ সম্পাদক এসএম হান্নান শাহ (সকালের সময়), অর্থ সম্পাদক জহিরুল আলম সাগর (ভোরের দর্পন), সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মোহাম্মদ জাহেদ (বাংলাদেশ বেতার), দপ্তর সম্পাদক নুরুদ্দোজা জনি (দৈনিক দৈনন্দিন), ক্রীড়া ও আপ্যায়ন সম্পাদক অলিউল্লাহ রনি (দৈনিক খবরপত্র), নির্বাহী সদস্য আবদুল মতিন চৌং (দৈনিক জনতা), মো. ফেরদাউস ওয়াহিদ, (দৈনিক রুপালী সৈকত), সাইদী আকবর ফয়সল (দৈনিক আলোকিত উখিয়া), এম. মোস্তফা কামাল (দৈনিক কালবেলা), বিএম হাবিব উল্লাহ (দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ), জামাল হোছাইন (দৈনিক সকালের কক্সবাজার), এম.আলী হোসেন (দৈনিক করতোয়া), শাহ জালাল শাহেদ (দৈনিক সংগ্রাম), আবদুল করিম বিটু (দৈনিক বাংলাদেশের খবর), আবুল মনসুর মো. মহসিন (দৈনিক আলোকিত সকাল), রিদুয়ানুল হক (দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার), নাজমুল সাঈদ সোহেল (দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ), আল জাবেদ (দৈনিক রুপালী সৈকত)।

পেকুয়া প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি এডভোকেট মীর মোশাররফ হোসেন টিুটু (নির্বাহী সম্পাদক-পাক্ষিক পেকুয়া), সাধারণ সম্পাদক এম আবদুল্লাহ আনসারী (মানবজমিন), সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন (দৈনিক ইনানী), মো. ফারুখ (দৈনিক বাঁকখালী), সাংবাদিক রুহুল আমিন পারভেজ, মাহমুদুল করিম, এম জোবাইদ (দৈনিক সুপ্রভাত বাংলাদেশ), দেলোয়ার হোছাইন (চ্যানেল এস), এফএম সুমন (দৈনিক আজকের দেশবিদেশ), রেজাউল করিম (সময়ের নিউজ) ও শহিদুল ইসলাম শহিদ (দেশ টুডে)।

আপনার মন্তব্য লিখুন