পেকুয়ায় যৌতকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে নির্যাতন

FB_IMG_1566936224056.jpg

দিসিএম

কক্সবাজারের পেকুয়ায় যৌতকের টাকা না পেয়ে স্ত্রী ছালেহা বেগমকে (২১)অমানুবিক নির্যাতন চালিয়েছে স্বামী মোঃ হোসেন।

আহত স্ত্রী সদর ইউনিয়নের হরিনাপাড়ি এলাকার জামাল উদ্দিনের মেয়ে স্বামী বারবাকিয়া ইউনিয়নের বুধামাঝির ঘোনা এলাকার আবদুল আজিজের ছেলে।

রবিবার ও সোমবার স্বামীর বাড়িতে দুই দফা নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। আহত গৃহবধু পেকুয়া সরকারিরি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত ছালেহা বেগমের মা ছেনুয়ারা বলেন, আমার মেয়ের সাথে মোঃ হোসেনের বিয়ে হয় বিগত দুই বছর আগে। বেশ কিছুদিন আগে সন্তানের মা হয়। বিয়ের পর থেকে সে যৌতকের টাকার জন্য আমার মেয়েকে মারধর করতো। সন্তান জন্মের পর মারধরের
মাত্রা বেড়ে যায়। কয়েকদফা টাকা দিয়েছি। এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার ও সোমবার দুই দফা তাকে মারধর করে গুরুতর আহত করে। মারধরের আঘাতে পুরো শরীর ক্ষতবিক্ষত হয়ে পড়ে। ওই সময় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আমার মেয়েকে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

আহত ছালেহা বেগম বলেন, স্বামী নামের পাষন্ড ও তার আত্বীয় স্বজন আমাকে পশুরমত আঘাত করেছে। হাত, পিট আর পা থেতলে দেন। স্থানীয়রা এগিয়ে নাআসলে আমাকে প্রাণে মেরে ফেলত। আমি এর বিচার চাই।

পেকুয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত)মিজানুর রহমান মারধরের বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।

আপনার মন্তব্য লিখুন