নৌকায় ভোট দিন চকরিয়া শহর হবে ফ্লাইওভার যুক্ত, পেকুয়ার মানুষ উঠবে ট্রেনে : জাফর আলম

Cox-12-December-Pic_1-6.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

চকরিয়া-পেকুয়া (কক্সবাজার-১) আসনে আওয়ামীলীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের সংসদ সদস্য প্রার্থী চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ জাফর আলম গতকাল বুধবার ১৩ ডিসেম্বর দিনব্যাপী চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় নৌকার সমর্থনে নির্বাচনী প্রচারনা ও গনসংযোগ করেছেন। এদিন তিনি চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী ডুলাহাজারা, কৈয়ারবিল, লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন ও চকরিয়া পৌরসভার ১, ৮নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের গণসংযোগকালে পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। গনসংযোগকালে তিনি একাধিক পথসভায় নৌকার পক্ষে জনমত গড়ে তুলতে সাধারণ জনগন ছাড়াও আওয়ামীলীগ এবং সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহন করেছেন।

দলের কর্মীসভায় আওয়ামীলীগের সংসদ সদস্য প্রার্থী আলহাজ জাফর আলম বলেন, ‘মানুষ এখন ইতিবাচক রাজনীতি চায়। জ্বালাও-পোড়াও কারো পছন্দ নয়। সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে জীবন-যাপন ও উন্নয়ন সবাই চায়। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে বিশ্বের কাছে বাংলাদেশকে উপস্থাপন করেছেন, দেশে যেভাবে উন্নয়নের জোয়ার বইছে তাতে দেশের প্রতিটি মানুষ খুশি। তাই এবারের চকরিয়া-পেকুয়া আসনে নৌকা বিপুল ভোটে বিজয় হবে।’

আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করার জন্য চকরিয়া-পেকুয়াবাসীর প্রতি আহবান জানিয়ে জাফর আলম বলেন, ‘নৌকা হচ্ছে স্বাধীনতার ও উন্নয়নের প্রতীক। নির্বাচনী প্রচার কাজ শুরু হওয়ার পর থেকে আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা নগরের প্রতিটি অলিগলি এবং ঘরে-ঘরে গিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট চাচ্ছেন। এখন পুরো চকরিয়া-পেকুয়ায় নৌকার গণজোয়ার বইছে।’

আওয়ামীলীগের প্রার্থী আলহাজ জাফর আলম জনগণের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ‘আপনারাই হলেন ক্ষমতার উৎস। আপনারাই চকরিয়া-পেকুয়ার শক্তি। বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আপনাদের কাছে আমাকে পাঠিয়ে উন্নয়নের বার্তা পৌঁছে দিয়ে নৌকার ভোট প্রার্থনা করার জন্য। আমি রাজনীতিতে এসেছি সেবার মনোবৃত্তি নিয়ে। রাজনীতি হচ্ছে মানবসেবা। আওয়ামী লীগ হলো একমাত্র রাজনৈতিক দল যারা এই দেশের মানুষের উন্নয়ন করে, মানুষের জন্য কাজ করে। যারা জনগণের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করে তাদের মনোনয়ন দেয়া হবে, সেটা বারবার নেত্রী বলেছেন। নৌকায় ভোট দিলে চকরিয়া শহর হবে ফ্লাইওভার যুক্ত, পেকুয়ার মানুষ উঠবে ট্রেনে।’

জাতীয় নির্বাচন প্রসঙ্গে জাফর আলম বলেন, ‘বিএনপির প্রার্থী এবার বিপুল ভোটের পরাজিত হয়ে আবারও ঠিক ঢাকায় ফিরে যাবে। জনগনের সামনে বিএনপির প্রার্থী নতুন নতুন কথা বলা শুরু করেছন। এবার তিনি স্বামী দেশে ফেরার জন্য ভোট চান। ২০০৮সালে ঠিক একই ভাবে স্বামীকে জেল থেকে বের করা জন্য ভোট চেয়ে ছিলেন। এরপর ১০বছর তাঁর দেখা মেলেনি। চকরিয়া-পেকুয়ার মানুষ বোকা নয়। এবার জনগণ উন্নয়নের স্বার্থে নৌকায় ভোট দিয়ে এ আসনটি জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দেব।

গতকাল বুধবার দিনব্যাপী নৌকার সমর্থনে ব্যাপক গনসংযোগ ও আওয়ামীলীগের কর্মী সভায় এমপি প্রার্থী আলহাজ জাফর আলমের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ হোছাইন, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফাসিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আমিনুর রশিদ দুলাল, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এস এম গিয়াস উদ্দিন, জিএম আবুল কাসেম, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পশ্চিম বড় ভেওলা ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম বাবলা, সাধারণ সম্পাদক ও সাহারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মহসিন বাবুল, সিনিয়র সহ-সভাপতি এসএম জাহাংগীর আলম বুলবুল, সহ-সভাপতি মকছুদুল হক ছুট্টু, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটু, সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী, কক্সবাজার জেলা পরিষদের সদস্য ও পেকুয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাংগীর আলম, চিরিঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ জসীম উদ্দিন, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, সহ-সভাপতি সাংবাদিক

জহিরুল ইসলাম, উজানটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এটিএম শহিদুল ইসলাম, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোক্তার আহমদ চৌধুরী, এমআর চৌধুরী, সহসভাপতি ফজলুল করিম সাঈদী, ছৈয়দ আলম কমিশনার, যুগ্ম সম্পাদক জামাল উদ্দিন জয়নাল, যুগ্ম সম্পাদক চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম, শাহনেওয়াজ তালুকদার, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, শওকত ওসমান চেয়ারম্যান, সাংবাদিক মিজবাউল হক, আওয়ামীলীগ নেতা আমিনুল করিম, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি তপন কান্তি দাশ, সহ-সভাপতি অধ্যাপক মোসলেহ উদ্দিন মানিক, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক রতন কুমার সুশীল, ফেরদৌস ওয়াহিদ, সেলিম উদ্দিন লিটন, কাউন্সিলর রেজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মুজিবুর রহমান লিটন, নজরুল ইসলাম লিটন, ফরিদুল ইসলাম, আওয়ামীলীগ নেতা মিফতাব উদ্দিন চৌধুরী, পুর্ববড় ভেওলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ হোসেন মেম্বার, পশ্চিম বড়ভেওলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল, চকরিয়া পৌরসভা কুষকলীগের সভাপতি সুলাল কান্তি সুশীল, আলহাজ নজরুল ইসলাম, আমির হোসেন আমু, চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শহীদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছির, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি শওকত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক বাবলা দেবনাথ, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক সাইফ উদ্দিন মামুন, চকরিয়া পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি হাসানগীর হোছাইন, সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম সোহেল, সাবেক ছাত্রনেতা রনী চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ হায়দার আলী, সাবেক সভাপতি শেফায়েতুল কবির চৌধুরী বাপ্পী, সাবেক সম্পাদক সাজিদ হোসেন শাকিব, সাদ্দাম হোসেন মিঠু, চকরিয়া পৌরসভা শ্রমিকলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন ধুলু, চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ মারুফ, সাধারণ সম্পাদক রুবেল মাহমুদ, চকরিয়া পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা পারভেজ ও ছাত্রনেতা আবদুল বারেক টিপু প্রমুখ।

নৌকায় ভোট দিন চকরিয়া শহর হবে ফ্লাইওভার যুক্ত, পেকুয়ার মানুষ উঠবে ট্রেনে- জাফর আলম

চকরিয়া-পেকুয়া (কক্সবাজার-১) আসনে আওয়ামীলীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোটের সংসদ সদস্য প্রার্থী চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ জাফর আলম গতকাল বুধবার ১৩ ডিসেম্বর দিনব্যাপী চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় নৌকার সমর্থনে নির্বাচনী প্রচারনা ও গনসংযোগ করেছেন। এদিন তিনি চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী ডুলাহাজারা, কৈয়ারবিল, লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন ও চকরিয়া পৌরসভার ১, ৮নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের গণসংযোগকালে পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। গনসংযোগকালে তিনি একাধিক পথসভায় নৌকার পক্ষে জনমত গড়ে তুলতে সাধারণ জনগন ছাড়াও আওয়ামীলীগ এবং সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহন করেছেন।

দলের কর্মীসভায় আওয়ামীলীগের সংসদ সদস্য প্রার্থী আলহাজ জাফর আলম বলেন, ‘মানুষ এখন ইতিবাচক রাজনীতি চায়। জ্বালাও-পোড়াও কারো পছন্দ নয়। সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে জীবন-যাপন ও উন্নয়ন সবাই চায়। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে বিশ্বের কাছে বাংলাদেশকে উপস্থাপন করেছেন, দেশে যেভাবে উন্নয়নের জোয়ার বইছে তাতে দেশের প্রতিটি মানুষ খুশি। তাই এবারের চকরিয়া-পেকুয়া আসনে নৌকা বিপুল ভোটে বিজয় হবে।’

আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করার জন্য চকরিয়া-পেকুয়াবাসীর প্রতি আহবান জানিয়ে জাফর আলম বলেন, ‘নৌকা হচ্ছে স্বাধীনতার ও উন্নয়নের প্রতীক। নির্বাচনী প্রচার কাজ শুরু হওয়ার পর থেকে আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা নগরের প্রতিটি অলিগলি এবং ঘরে-ঘরে গিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট চাচ্ছেন। এখন পুরো চকরিয়া-পেকুয়ায় নৌকার গণজোয়ার বইছে।’

আওয়ামীলীগের প্রার্থী আলহাজ জাফর আলম জনগণের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ‘আপনারাই হলেন ক্ষমতার উৎস। আপনারাই চকরিয়া-পেকুয়ার শক্তি। বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আপনাদের কাছে আমাকে পাঠিয়ে উন্নয়নের বার্তা পৌঁছে দিয়ে নৌকার ভোট প্রার্থনা করার জন্য। আমি রাজনীতিতে এসেছি সেবার মনোবৃত্তি নিয়ে। রাজনীতি হচ্ছে মানবসেবা। আওয়ামী লীগ হলো একমাত্র রাজনৈতিক দল যারা এই দেশের মানুষের উন্নয়ন করে, মানুষের জন্য কাজ করে। যারা জনগণের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করে তাদের মনোনয়ন দেয়া হবে, সেটা বারবার নেত্রী বলেছেন। নৌকায় ভোট দিলে চকরিয়া শহর হবে ফ্লাইওভার যুক্ত, পেকুয়ার মানুষ উঠবে ট্রেনে।’

জাতীয় নির্বাচন প্রসঙ্গে জাফর আলম বলেন, ‘বিএনপির প্রার্থী এবার বিপুল ভোটের পরাজিত হয়ে আবারও ঠিক ঢাকায় ফিরে যাবে। জনগনের সামনে বিএনপির প্রার্থী নতুন নতুন কথা বলা শুরু করেছন। এবার তিনি স্বামী দেশে ফেরার জন্য ভোট চান। ২০০৮সালে ঠিক একই ভাবে স্বামীকে জেল থেকে বের করা জন্য ভোট চেয়ে ছিলেন। এরপর ১০বছর তাঁর দেখা মেলেনি। চকরিয়া-পেকুয়ার মানুষ বোকা নয়। এবার জনগণ উন্নয়নের স্বার্থে নৌকায় ভোট দিয়ে এ আসনটি জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দেব।

গতকাল বুধবার দিনব্যাপী নৌকার সমর্থনে ব্যাপক গনসংযোগ ও আওয়ামীলীগের কর্মী সভায় এমপি প্রার্থী আলহাজ জাফর আলমের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ হোছাইন, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফাসিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আমিনুর রশিদ দুলাল, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এস এম গিয়াস উদ্দিন, জিএম আবুল কাসেম, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পশ্চিম বড় ভেওলা ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম বাবলা, সাধারণ সম্পাদক ও সাহারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মহসিন বাবুল, সিনিয়র সহ-সভাপতি এসএম জাহাংগীর আলম বুলবুল, সহ-সভাপতি মকছুদুল হক ছুট্টু, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটু, সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী, কক্সবাজার জেলা পরিষদের সদস্য ও পেকুয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাংগীর আলম, চিরিঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ জসীম উদ্দিন, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, সহ-সভাপতি সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, উজানটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এটিএম শহিদুল ইসলাম, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোক্তার আহমদ চৌধুরী, এমআর চৌধুরী, সহসভাপতি ফজলুল করিম সাঈদী, ছৈয়দ আলম কমিশনার, যুগ্ম সম্পাদক জামাল উদ্দিন জয়নাল, যুগ্ম সম্পাদক চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম, শাহনেওয়াজ তালুকদার, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, শওকত ওসমান চেয়ারম্যান, সাংবাদিক মিজবাউল হক, আওয়ামীলীগ নেতা আমিনুল করিম, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি তপন কান্তি দাশ, সহ-সভাপতি অধ্যাপক মোসলেহ উদ্দিন মানিক, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক রতন কুমার সুশীল, ফেরদৌস ওয়াহিদ, সেলিম উদ্দিন লিটন, কাউন্সিলর রেজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মুজিবুর রহমান লিটন, নজরুল ইসলাম লিটন, ফরিদুল ইসলাম, আওয়ামীলীগ নেতা মিফতাব উদ্দিন চৌধুরী, পুর্ববড় ভেওলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ হোসেন মেম্বার, পশ্চিম বড়ভেওলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল, চকরিয়া পৌরসভা কুষকলীগের সভাপতি সুলাল কান্তি সুশীল, আলহাজ নজরুল ইসলাম, আমির হোসেন আমু, চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শহীদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছির, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি শওকত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক বাবলা দেবনাথ, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক সাইফ উদ্দিন মামুন, চকরিয়া পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি হাসানগীর হোছাইন, সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম সোহেল, সাবেক ছাত্রনেতা রনী চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ হায়দার আলী, সাবেক সভাপতি শেফায়েতুল কবির চৌধুরী বাপ্পী, সাবেক সম্পাদক সাজিদ হোসেন শাকিব, সাদ্দাম হোসেন মিঠু, চকরিয়া পৌরসভা শ্রমিকলীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন ধুলু, চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ মারুফ, সাধারণ সম্পাদক রুবেল মাহমুদ, চকরিয়া পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা পারভেজ ও ছাত্রনেতা আবদুল বারেক টিপু প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য লিখুন