নৌকায় ভোট দিলে প্রতি ঘরে নারীদের জীবনমানের উন্নতি হবে : নৌকার প্রার্থী আশেক পত্নী রুমা

-19.jpg

এম বশির উল্লাহ,মহেশখালী :

কুতুবদিয়া সংসদীয় আসনের মহেশখালীর মাতারবাড়ী দক্ষিণ রাজঘাট উঠান বৈঠকে, নৌকার প্রার্থী আশেক পত্নী রুমা।
কক্সবাজার- ২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) সংসদীয় আসনে প্রার্থীদের পাশা-পাশি প্রচারণায় নেমেছে স্ত্রী ও স্বজনরা। জাতীয় সংসদ নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রচার-প্রচারণায় ততই জমে উঠছে। সময় রয়েছে আর মাত্র ৬ দিন। ইতিমধ্যেই গ্রামে গঞ্জে প্রচার-প্রচারণা জমে উঠেছে। প্রচারণায় শুধু প্রার্থী আর রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী-সমর্থক নয়, স্ত্রী ও নিকটাত্মীয়রা কোমর বেঁধে ভোটের প্রচারণা নেমে পড়েছেন। প্রার্থীদের স্ত্রী ও আত্মীরা বিরামহীন প্রচারণায় নতুন মাত্রা সৃষ্টি করেছেন।
‌২২ ডিসেম্বর শনিবার সকালে মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ রাজঘাট, উত্তর সিকদার পাড়া, হিন্দু পাড়া, মাতারবাড়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,সাইর ডেইল ভোটারদের নিয়ে উঠান বৈঠক করেন সাহেদা নাছরিন রুমা। গতকাল শুক্রবার সকালে উপজেলার কুতুুবজোম ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে গণসংযোগ করে উঠান বৈঠক করেছেন তিনি। ( মহেশখালী-কুতুবদিয়া) নৌকার প্রার্থী অাশেক পত্নী রুমা বলেন বর্তমান সরকার নারীর ক্ষমতায়নে ব্যাপক প্রদক্ষেপ গ্রহন করে নারীদের যথাযথ সম্মান করেছে আগামীতে আরো সম্মানিত হবেন নৌকা মার্কার প্রার্থী বিজয় হলে।
এর পর পাশ্ববর্তী কয়েকটা গ্রামে গণসংযোগ করেছেন।
‌সাহেদা নাছরিন বলেন,এলাকার নারী পুরুষেরা সামনে যেতে আগ্রহী না। প্রার্থীর প্রতিনিধি হিসেবে স্ত্রীকে কাছে পাওয়ায় নারী ভোটাররা খুশি। কারণ, তাঁদের অভিযোগ ও চাওয়া -পাওয়া মন খুলে বলার সুযোগ পাচ্ছেন। আগের তুলনায় ভোট কেন্দ্রে নারী ভোটারের স্বতঃ স্ফুর্ত উপস্থিতি আশা করছেন তিনি।
‌মহেশখালী উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী ও জেলা পরিষদ সদস্য মশরফা বেগম বলেন, ঘরে ঘরে উঠার বৈঠক করে নারী ভোটারদের সচেতন করা হচ্ছে। আগে বহু নারী ভোট কেন্দ্রে যেতে অনীহা প্রকাশ করতেন। এখন নিজের ভোট পছন্দের প্রার্থীকে দেওয়াটা তাঁরা দায়িত্ব মনে করছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুন