ট্রাম্পের দেশের কোম্পানি হারলি ডেভিডসন কেন ভারত ছাড়ছে

Presentation3-1.jpg

হারলি ডেভিডসন মধ্যবিত্তের মধ্য বিলাসী মোটরসাইকেলটি জনপ্রিয় করতে ২০১৮ সালের ২৫০ সিসির বাইক বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দেয়। এর মধ্য হারলি তার দুটো মডেলের দাম ৬৫ হাজার থেকে ৭৭ হাজার রুপি পর্যন্ত কমিয়ে দেয়। কিন্তু তবুও বাড়েনি বিক্রি।

হারলি ডেভিডসনের প্রায় ১২টি মডেলের মোটরসাইকেল ভারতে বিক্রি হচ্ছিল

হারলি ডেভিডসনের প্রায় ১২টি মডেলের মোটরসাইকেল ভারতে বিক্রি হচ্ছিল

ভারত থেকে ব্যবসা গুটিয়ে নিচ্ছে বিশ্বের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় বিলাসী মোটরসাইকেল নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হারলি ডেভিডসন। ব্যবসা তেমনভাবে না হওয়ায় এবার ভারত থেকে পাততাড়ি গোটাচ্ছে ভারী মোটরসাইকেল তৈরিতে পৃথিবীবিখ্যাত এই কোম্পানিটি।

করোনাভাইরাসের কারণে ব্যবসায় মন্দা চলছে বিশ্বের অনেক বড় কোম্পানির। ধস নেমেছে বিক্রি-বাট্টায়। করোনার করাল গ্রাসের মধ্য বিলাসী মোটরসাইকেল নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হারলি ডেভিডসন ভারত থেকে গুটিয়ে নিচ্ছে তাদের ব্যবসাপাতি।

নানা কারণে ভারতে ক্রমেই বিক্রি কমছিল হারলির মোটরসাইকেলের। কোভিড-১৯ মহামারিতে পরিস্থিতি আরও জটিল আকার ধারণ করে। গেল আর্থিক বছরে ভারতে আড়াই হাজার ইউনিটের কম মোটরসাইকেল বিক্রি করতে পেরেছে হারলি ডেভিডসন।

এ বছরের এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত তিন মাসে ১০০টি বাইক বিক্রি করেছে মার্কিন কোম্পানি। এ কারণে সম্প্রতি একাধিক মডেলের দাম কমিয়ে দিয়েছিল মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি। কোম্পানিটি মধ্যবিত্তের মধ্য বিলাসী মোটরসাইকেলটিকে জনপ্রিয় করার জন্য ২০১৮ সালের জুলাইয়ে ২৫০ সিসির বাইক দুই বছরের মধ্য বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দেয়। এর মধ্য হারলি তার দুটো মডেলের দাম ৬৫ হাজার থেকে ৭৭ হাজার রুপি পর্যন্ত কমিয়ে দেয়। কিন্তু তবুও বাড়েনি বিক্রি।

হারলি ডেভিডসনের এক কর্মকর্তা বলছেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মধ্যে ভারতে বাইকের বিক্রি সবচেয়ে কম।

‘দ্য হিন্দু’র খবরে বলা হয়েছে, কম বিক্রি এবং ভবিষ্যতে চাহিদা বৃদ্ধি করার মতো পরিস্থিতি না থাকায় এক দশকের মধ্যে ভারত ছাড়ছে হারলি ডেভিডসন।

কিছুদিন আগেই ভারতীয় মোটরসাইকেল প্রস্তুতকারী সংস্থা রয়্যাল এনফিল্ডের সঙ্গে প্রতিযোগিতার জন্য ৩৩৮ সিসির মোটরসাইকেল এনেছিল হারলি ডেভিডসন। এনফিল্ডের বুলেট ব্র্যান্ডের মোটরবাইকের মোকাবিলায় এ মোটরসাইকেল এনেছে মার্কিন সংস্থাটি। কিন্তু বিক্রি ভালো হয়নি।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে কমবয়সী ক্রেতাদের মধ্যে দামি মোটরসাইকেল কেনার ক্ষমতা না থাকায় ঘরোয়া বাজারে আগেই বিক্রিতে মার খেয়েছে হারলি ডেভিডসন।

ভারতের হারলির বিক্রি হওয়া বাইকগুলোর দাম ৫ থেকে ৩৮ লাখ রুপির মধ্য

ভারতের হারলির বিক্রি হওয়া বাইকগুলোর দাম ৫ থেকে ৩৮ লাখ রুপির মধ্য

২০১১ সালে ভারতের হরিয়ানার বাওয়ালে কারখানা তৈরি করে ব্যবসা শুরু করে মোটরসাইকেল তৈরিতে বিখ্যাত হারলি ডেভিডসন। এশিয়ার অন্যতম বৃহত্তম অর্থনৈতিক শক্তি ভারত বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোটরসাইকেলের বাজার। অর্থনৈতিক উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে দেশটিতে বিলাসবহুল মোটরসাইকেলের চাহিদাও দিন দিন বৃদ্ধি পাওয়ায় হারলি দেশটিতে ব্যবসা শুরু করে।

ভারত মূলত কম দামি ও অপেক্ষাকৃত সাশ্রয়ী মোটরসাইকেলের অন্যতম বৃহৎ বাজার। তবে বৃহৎ মধ্যবিত্ত জনসংখ্যার পাশাপাশি উচ্চবিত্তের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার ফলে দেশটিতে দামি ও বিলাসবহুল মোটরসাইকেলের ব্যাপকভিত্তিক বাজার তৈরি হয়েছে। হারলি ডেভিডসনের প্রায় ১২টি মডেলের আমদানি করা মোটরসাইকেল ভারতের বড় শহরগুলোতে ৫ লাখ থেকে ৩৮ লাখ রুপি মূল্যে বিক্রি হয়। যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ভারত সফরের আগে হারলি ডেভিডসনের পক্ষ থেকে ভারতে ২০১১ সালের মোটরসাইকেল তৈরির ঘোষণা দেওয়া হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের পর হারলি ডেভিডসন কেবল ব্রাজিলেই এ ধরনের কারখানা তৈরি করেছিল। ভারত হবে তৃতীয় দেশ, যেখানে হারলি ডেভিডসন মোটরসাইকেল তৈরির জন্য কারখানা স্থাপন করছে। চীনের পর ভারতই বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোটরসাইকেলের বাজার।

দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির কারণে দেশটিতে ধনবান মানুষের সংখ্যা অনেক বেড়ে যাওয়ায় বিলাসবহুল ও ফ্যাশনেবল মোটরসাইকেলের বাজার সৃষ্টি হয়েছে। বাজারটি ধরাই হারলি ডেভিডসনের উদ্দেশ্য ছিল। কিন্তু না জমায় ব্যবসা শুরুর দশকের মধ্যে ব্যবসা গোটাচ্ছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেশের কোম্পানিটি।

ভারতে ২০১১ সালে ব্যবসা শুরু করে হারলি ডেভিডসন

ভারতে ২০১১ সালে ব্যবসা শুরু করে হারলি ডেভিডসন

ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট থাকা অবস্থায় হারলি ডেভিডসন দ্বিতীয় মার্কিন গাড়ি নির্মাতা সংস্থা, যারা ভারত ছাড়ছে। এর আগে ২০১৭ সালে গুজরাটে নিজেদের কারখানা বন্ধ করে দেয় জেনারেল মোটরস।

আপনার মন্তব্য লিখুন