চকরিয়ায় ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে ভাই খুন

FB_IMG_1537987980155.jpg

দিসিএম

চকরিয়ায় ঘরে মুরগির বাচ্চা প্রবেশকে কেন্দ্র করে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে আপন খালাতো ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে খালাতো ভাই আহত মো.রাসেল (২০) নিহত হয়েছেন। ওইসময় নিহত রাসেলের বাবা বাচ্চু মিয়াও আহত হন। সোমবার বিকালে এ ঘটনা ঘটলেও মঙ্গলবার সকাল ৮টায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় মো.রাসেল। চকরিয়া উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়নের মরংঘোনার নোয়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মো.রাসেল ওই এলাকার মো.বাচ্চু মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে বেলাল উদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ। একই ঘটনায় জড়িত তার ছেলে রুবেল পলাতক রয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, গত সোমবার বিকাল ৫টার দিকে রুবেলের বাড়িতে মুরগির বাচ্চা প্রবেশ করাকে কেন্দ্র করে দুই বোনের মধ্যে ঝগড়া হয়। পরে রুবেল ও তার বাবা বেলাল উদ্দিনের সাথে মো.রাসেলের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে রুবেল ও তার বাবা বেলাল উদ্দিন মিলে রাসেলকে ছুরিকাঘাত করে। ওইসময় রাসেলকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসলে তার বাবা বাচ্চু মিয়া ছুরিকাঘাতে আহত হয়। গুরুতর আহত রাসেলকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে প্রথমে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
এসময় তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় চমেক হাসপাতালে রেফার করেন চিকিৎসকরা। চিকিৎসা চলাকালে মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে মারা যায় রাসেল।
কোণাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদার বলেন, ঘরে মুরগির বাচ্চা প্রবেশ করা নিয়ে বিবাদে জড়ানো দু’পরিবার পরস্পর আত্মীয়। তুচ্ছ ঘটনায় ধারালো অস্ত্র ব্যবহার করায় হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, নিহত রাসেলের লাশ চট্টগ্রামে ময়নাতদন্ত করে চকরিয়ায় আনা হবে।
এঘটনায় জড়িত অভিযোগে বেলাল উদ্দিনকে আটক করা হয়েছে। তার ছেলে রুবেলকে আটক করার চেষ্টা চলছে। হত্যার ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন