কাবুলে বিয়ের আসরে ভয়াবহ বিস্ফোরণ; নিহত কমপক্ষে ৬৩, আহত ১৮২

images-1.jpeg

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিয়েবাড়ির হুল্লোড় থেমে গেল বিকট আওয়াজে। মুহূর্তের মধ্যেই তছনছ চারদিক। ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে মানুষের দেহাংশ, পোশাক, চেয়ার টেবিল। শনিবার রাতে ভয়ঙ্কর এক আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে নিহত হলেন বিয়েবাড়িতে আসা ৬৩ জন। আহত ১৮২। নিহতদের মধ্যে রয়েছে বহু মহিলা ও শিশু।

শনিবার রাতে উত্তর কাবুলে ওই বিস্ফোরণ ঘটে শিয়া সম্প্রদায়ের একটি বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠানে। সাধারণভাবে বিশাল ধুমধাম হয়ে থাকে আফগানদের বিয়েতে। বিয়ের অনুষ্ঠানে সাধারণভাবে পুরুষ ও মেয়েদের পৃথকভাবে বসার ব্যবস্থা করা হয়। এক্ষেত্রেও সেটাই করা হয়েছিল। আত্মঘাতী বেমারু হামলা চালায় পুরুষদের দিকে।

প্রাণ বেঁচে যাওয়া মহম্মদ ফারহাগ নামে এক ব্যক্তি সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ‘আমি ছিলাম মেয়েদের দিকে। হঠাত্ শুনতে পেলাম পুরুষদের বসার জায়গায় বিকট বিস্ফোরণের আওয়াজ। টানা মিনিট ২০ এলাকা ধোঁয়ায় ভরে ছিল। পরে ধোঁয়া সরতে দেখলাম ওদিকটায় অধিকাংশ লোকই হয় মরে গিয়েছে নয়তো মারাত্মক আহত।’

আফগানিস্থানে সাধারণভাবে শিয়া সম্প্রদায়ভূক্ত হাজারাদের ওপর হামলা চালায় তালিবান। তবে শনিবারের বিস্ফোরণের কোনও দায় তালিবান বা অন্য কোনও গোষ্ঠী স্বীকার করেনি। বিয়েবাড়ির মতো অনুষ্ঠানে যেহেতু নিরাপত্তা ব্যবস্থা অনেকটাই ঢিলেঢালা থাকা সেহেতু খুব সহজেই এইসব অনুষ্ঠানকে বেছে নেয় জঙ্গিরা।

গত ১২ জুলাই নানগাহার প্রদেশে এক বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠানে হামলা চালায় জঙ্গিরা। নিহত হন ৬ জন। বর্তমানে আফগানিস্থানে ১৪,০০০ মার্কিন সেনা রয়েছে। তাদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আফগান সরকারের সঙ্গে কথাবার্তা চালাচ্ছে মার্কিন প্রশাসন। তার মধ্যেই ভয়াবহ বিস্ফোরণ।

আপনার মন্তব্য লিখুন