কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের মজবুদ ভবন নির্মাণ বিষয়ে সেমিনার

48374944_2231012990255885_5444900499801243648_n-20.jpg

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সভাকক্ষে হাউজিং এন্ড বিল্ডিং রিসার্চ ইনস্টিটিউট এর উদ্যোগে ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সহযোগিতায় দিনব্যাপী “প্রমোটিং সাসটেইনেবল বিল্ডিং ইন বাংলাদেশ” বিষয়ক প্রকল্পের একটি সেমিনার কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে: কর্নেল (অব:) ফোরকান আহমদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এইচবিআরআই এর পরিচালক মোহাম্মদ শামীম আখতার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতি (বেলা) এর প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রেজওয়ানা হাসান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এইচবিআরআই এর পরিচালক মোহাম্মদ শামীম আখতার বলেন- বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের চরম শিখরে অবস্থান করছে। তিনি উন্নয়নের অগ্রযাত্রা সমুন্নত রাখতে পরিবেশ বান্ধব নির্মাণ সামগ্রীর ব্যবহার বৃদ্ধি করার পরামর্শ প্রদান করেন যাতে পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। তিনি এইচবিআরআই উদ্ভাবিত বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী, হলোব্লক, এএসি ব্লক সম্পর্কে ধারনা প্রদান করেন।

সভাপতির বক্তব্যে কউক চেয়ারম্যান বলেন, আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রতিজ্ঞা করেছি একটি আধুনিক ও পরিকল্পিত পর্যটন নগরী উপহার দেয়ার। তাই সকল দপ্তর সংস্থার সমন্বয়ে পরিকল্পিত পর্যটন নগরী বাস্তবায়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। এ লক্ষ্যে ইতোমধ্যে বেশ কিছু প্রকল্প করা হয়েছে। উক্ত প্রকল্পসমূহে এইচবিআরআই উদ্ভাবিত বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী, হলোব্লক, এএসি ব্লক ব্যবহার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে বলে জানান। তিনি বলেন, এইচবিআরআই এর উদ্যোগে কক্সবাজারে এ রকম একটি সভা হওয়ায় আমি খুবই আনন্দিত। সকলের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এ রকম সেমিনার মাঝে মধ্যে করা প্রয়োজন বলে তিনি মতামত ব্যক্ত করেন। তিনি আরো বলেন, ভুমির উর্বরতা রক্ষার্থে পোড়া ইটের বিকল্প ব্যবহার করতে হবে। কারণ পোড়ামাটির ইটের ব্যবহার বৃদ্ধি পেলে শুধু পরিবেশ হুমকির মুখে পড়বে তা নয়; দেশের মানুষও হুমকির মুখে পড়বে। তাই এ থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার লক্ষ্যে কয়েকটি পাইলট প্রকল্প গ্রহণের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

অনুষ্ঠানে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সদস্য (প্রকৗশল) লে: কর্নেল মোহাম্মদ আনোয়ার উল ইসলাম কউকের গৃহীত বিভিন্ন প্রকল্পের বিষয়ে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন এবং কউকের গৃহীত বিভিন্ন প্রকল্পের মধ্যে এইচবিআরআই উদ্ভাবিত বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী হলোব্লক, এএসি ব্লক ব্যবহার করবে বলে জানান।

বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রেজওয়ান হাসান বলেন-সরকারের মাস্টার প্ল্যান থাকতে হবে যাতে সরকারী সকল প্রতিষ্ঠানের সমন্বিত উদ্যোগে পরিবেশ বান্ধব বিকল্প নির্মান সামগ্রীর ব্যবহার বৃদ্ধি করতে পারি। পরিবেশ বান্ধব নির্মাণ সামগ্রীর ক্ষেত্রে শুধুমাত্র সরকারী ভাল নীতি ও আইন যথেষ্ঠ নয় বরং আইনের প্রয়োগ জরুরী। প্রকল্পের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যে সম্পর্কে সম্যক ধারনা প্রদান করেন আনিসুর রহমান চৌধুরী, এইচবিআরআই।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সচিব (উপ সচিব) আবু জাফর রাশেদ, নির্বাহী প্রকৌশলী কাজী ফজলুল করিম, উপ নগর পরিকল্পনাবিদ মো: জাহাঙ্গীর আলি, অক্সফাম বাংলাদেশের আরবান ম্যানেজার আনিসুর রহমান চৌধুরী, এইচবিআরআই এর মো: আকতার হোসেন সরকার এবং বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ, ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ার ব্যক্তিবর্গসহ কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তাবৃন্দ।

আপনার মন্তব্য লিখুন