কক্সবাজারে বিজ্ঞান ও প্রযুুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেওয়া হবে : নওফেল

Presentation1-3.jpg

মাহাবুবুর রহমান :
শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিষ্টার মুহিবুল হাসান নওফেল বলেছেন, শিক্ষা ব্যবস্থায় বিজ্ঞান প্রযুক্তি এবং কারিগরি শিক্ষাকে বেশি অগ্রাধিকার দেওয়া হবে যাতে আমাদের মানব সম্পদকে দেশের উন্নয়নে কাজে লাগানো যায়। এছাড়া ১৬ বছরের নীচে সবাইকে পাঠাসূচীতে বিজ্ঞান শিক্ষা বাধ্যতামূলক করার ও একটি পরিকল্পনা আছে। যাতে দেশের সকল শিক্ষার্থীদের মাঝে বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তির ধারনা থাকে। এছাড়া বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা শিক্ষা খাতকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন তাই শিক্ষাকে আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছি।
তিনি গতকাল কক্সবাজারের হোটেল লংবীচে চট্টগ্রাম বিজ্ঞান ও প্রযু্িক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়োজনে আর্ন্তজাতিক ইলেক্ট্রিরাল কম্পিউটার এন্ড কমিনিকেশন বিষয়ক সেমিনারে প্রধান অথিতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এ সময় উপমন্ত্রী আরো বলেন,কক্সবাজারের পরিবেশ এবং পারপার্শিক অবস্থা বিবেচনা করে এখানে একটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলার পরিকল্পনা নেওয়া হবে। একই সাথে এখানে কারিগরি শিক্ষার উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্টার গড়ে তোলা হবে।সেমিনারে বিশেষ অথিতি ছিলেন চট্টগ্রাম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ রফিকুল ইসলাম,এতে সভাপতিত্ব করেন চুয়েটের গবেষনা ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের ডিন কৌশিক দেব।
এর আগে সকল সাড়ে ৯ টায় উপমন্ত্রী কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রশ্ন ফাঁস রুধে সরকার সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে। কোথাও কোন অনিয়ম হলেই তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া কোচিং বানিজ্য রুধ করতে এবং শিক্ষকদের কর্মস্থলে অনুপস্থিত এবং বদলী তদবির বন্ধ করতে সরকার আন্তরিক ভাবে কাজ করছে। তিনি বলেন, সরকার একার পক্ষে সব কাজ এক সাথে সমাধান করা সম্ভব না সেজন্য সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। বিশেষ করে গনমাধ্যমের সহযোগিতা বেশি প্রয়োজন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর সাহেদা ইসলাম,মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের আঞ্চলিক পরিচালক প্রফেসর প্রদীপ চক্রবর্তী,কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শিক্ষা ও আইটিসি আসরাফ হোসেন,চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক মোঃ মাহবুব হাসান,জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ছালেহ উদ্দিন চৌধুরী,কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাম মোহন সেন প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য লিখুন