কক্সবাজারে আ’লীগ-ছাত্রলীগ নেতার অস্ত্রের মহড়া

Cox-s-bazar.jpg

কক্সবাজার শহরে জমির বিরোধ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৫ জন গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন। আজ মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের উত্তর নুনিয়াছড়া শিল্প এলাকার ঠোঁটিয়া পাড়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে।

স্থানীয় নুরুল আবছার এবং মোহাম্মদ আলীর মধ্যে জমির বিরোধের সূত্র ধরে এই সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গেছে। এই ঘটনার জন্য পরস্পরকে দায়ী করা হচ্ছে।

আহতদের মধ্যে কয়েকজন হলেন- মুফিজুর রহমান, মোজাম্মেল হক, নুর জাহান, আবদু ছালাম, রিফা আক্তার, আয়েশা বেগম, জিসান, ইমন, মুরাদ, মুন্নি আক্তার ও মো. সেলিম। আহতদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। রাত ১০টা পর্যন্ত ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করা যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কোস্টগার্ডের মাঝি হিসেবে পরিচিত মো. জামাল, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম, ৩ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি রিদুয়ান আলী সাজিন ও গিয়াস উদ্দিনের নেতৃত্বে সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে। এ সময় খোকা প্রকাশ ভেট্টা, কায়সার, আবু হেলা, শাহাব উদ্দিনসহ অন্তত ৫০ জন সশস্ত্র অবস্থায় ছিল।

ওই ঘটনার সময় আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম ও ছাত্রলীগ নেতা রিদুয়ান আলী সাজিনকে প্রকাশ্যে অস্ত্র উচিয়ে প্রতিপক্ষের দিকে গুলিবর্ষণ করতে দেখা গেছে। দিনদুপুরে অস্ত্র হাতে দেখে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় কাউন্সিলর মিজানুর রহমান জানিয়েছেন, খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছান এবং উভয়পক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু দুই পক্ষের মারমুখি অবস্থানের কারণে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সদর মডেল থানার ওসির দায়িত্বে থাকা মাসুম খান জানান, ঘটনার পরপরই পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। ঘটনার বিস্তারিত জেনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। একইসাথে দিন-দুপুরে অস্ত্র ব্যবহারকারীদের বিষয়ে তথ্য নেয়া হচ্ছে।

আপনার মন্তব্য লিখুন