এত লীগ দিয়ে বিব্রত আওয়ামী লীগ

1534262507_754797.jpg

৭০ বছরে পদর্পণ করলো আওয়ামী লীগ

এম. বেদারুল আলম :
সরকার ক্ষমতায় থাকলে বেড়ে যায় দলের শাখা প্রশাখা। অনেকে সুবিধা নিতে দলকে ব্যবহার করে বিভিন্ন ফায়দা লুটে। অনেকে আবার সাইনবোর্ড হিসাবে পদবী ব্যবহার করে বিব্রত করে দলের সুনাম। ক্ষমতায় থাকলে বেড়ে যায় সুযোগ সন্ধানী। জামায়াতের অথবা বিএনপির অনেক ডাকসাইটে নেতা বনে যায় দলের অন্তপ্রাণ। দলকে ব্যবহার করার জন্য অনেকে বিভিন্ন কৌশলে পদবী কিনে ফায়দা হাসিলে ব্যস্ত। ভেজালের ভিড়ে প্রকৃত আওয়ামীলীগের অনেক ত্যাগি নেতাকর্মীরা আজ বিভ্রান্ত দিশেহারা। জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে উঠেছে অনেক সুবিধাভোগী কালো তালিকাভুক্ত অংগসংগঠন। মূল অঙ্গ সংগঠনের বাইরে আওয়ামী লীগের এবং দলের প্রধান বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নাম ব্যবহার করে অনেকে বিভিন্ন শাখা প্রশাখা খুলে দলের বদনাম করতে ব্যস্ত থাকলে ও তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়ায় সুবিধাবাদীরা দলকে বিক্রি করতে ও দ্বিধা করছেনা।
এদিকে গত বছরের ৩ মার্চ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রিয় যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ এমপি, অবৈধ অঙ্গ সংগঠনের তালিকা প্রকাশ করেন এবং উক্ত সংগঠনের কার্যক্রমের বিষয়ে সকলের সজাগ থাকার আহবান জানান। তাদের বিষয়ে কঠোর হওয়ার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান। মাহবুবুল আলম হানিফ কর্তৃক অবৈধ সংগঠনের প্রকাশিত তালিকার মধ্যে ৫৬ টি নাম রয়েছে। অবৈধ তালিকাভুক্ত অঙ্গ সংগঠনসমুহ হলো- আওয়ামী যুব হকার্স লীগ, আওয়ামী ছিন্নমূল হকার্স লীগ, আওয়ামী সমবায় লীগ, আওয়ামী শিশু যুব সাংস্কৃতিক লীগ, আওয়ামী পরিবহন শ্রমিক লীগ, আওয়ামী পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধা লীগ, আওয়ামী তৃনমূল লীগ, ছিন্নমূল মৎস্যজীবী লীগ, আওয়ামী যুব স্বেচ্ছাসেবকলীগ, শিশু কিশোরলীগ, অভিভাবকলীগ, আওয়ামী ওলামালীগ, কর্মজীবী লীগ, তরিকত লীগ, রিক্সা মালিকলীগ, রিক্সা মালিক-শ্রমিক ঐক্যলীগ, ভ্যানশ্রমিক লীগ, আমরা নৌকা প্রজন্ম, দেশীয় চিকিৎসকলীগ, নৌকা সর্মথক গোস্টী, নৌকার নতুন প্রজন্ম, ঘাট শ্রমিক লীগ, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ি লীগ, ক্ষুদ্র মৎস্যজীবী লীগ, মুক্তিযোদ্ধা জনতালীগ, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংরক্ষন লীগ, বঙ্গবন্ধু বাস্তুহারা লীগ, বঙ্গবন্ধু হকার্স ফেডারেশন, বঙ্গবন্ধু চিন্তাধারা বাস্তবায়ন পরিষদ, বঙ্গবন্ধু জয়বাংলা লীগ, চেতনায় মুজিব, আমরা মুজিবসেনা, জননেত্রী সৈনিকলীগ, বঙ্গবন্ধু গ্রাম বাংলা পরিষদ, রাসেল মেমোরিয়াল একাডেমি, জননেত্রী পরিষদ, দেশরতœ পরিষদ, বঙ্গমাতা পরিষদ, আওয়ামী প্রচারলীগ, আওয়ামী পর্যটনলীগ, আওয়ামী নবিন লীগ, আওয়ামী প্রচার ও প্রকাশনা লীগ, আওয়ামী স্বাধীনতা লীগ, আওয়ামী বাস্তুহারা লীগ, তরুনলীগ, আওয়ামী ইয়াংবাংলা লীগ, আওয়ামী হকার্স লীগ প্রমুখ।
এদিকে উক্ত সংগঠনের কার্যক্রম এবং দলীয় নির্দেশ অমান্য করে তৎপরতা চালানোর বিষয়ে জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র কয়েকজন নেতার বক্তব্য জানার জন্য যোগাযোগ করে হলে তারা দলীয় শৃংখলা রক্ষা এবং ভাবমূর্তি রক্ষার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান এবং এ বিষয়ে কেন্দ্রের নির্দেশনা মেনে চলার জন্য অনুরোধ জানান তবে কোন নেতা নাম প্রকাশ না করার জন্য এ প্রতিবেদককে আহবান জানান।

আপনার মন্তব্য লিখুন