ইসলামের ১১তম খলিফা দাবি করে গ্রেফতার তিনি (ভিডিও)

police-arrest-cleric-20181008215701.jpg

দিসিএম ডেস্ক

ইসলামের ১১তম খলিফা হিসেবে নিজেকে দাবি করার পর গ্রেফতার হয়েছেন পাকিস্তানি এক আলেম। একদিন আগে রোববারপাকিস্তানি এই আলেম নিজেকে ইসলামের খলিফা ঘোষণা দিয়ে একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করেন।

সোমবার পাকিস্তানে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এক ছবিতে দেখা যায়, দেশটির সাহিওয়াল পুলিশ তাকে গ্রেফতারের পর পুলিশ ভ্যানে করে নিয়ে যাচ্ছে। তবে গ্রেফতারের ব্যাপারে বিস্তারিত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইসলামের ১১তম খলিফা দাবি করে আব্দুল্লাহ বিন মনিব নামের ওই আলেমের পোস্ট করা একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায় মুহূর্তের মধ্যে।

হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর নাম উল্লেখ করে তিনি ভিডিওতে বলেন, মহান সৃষ্টিকর্তার কৃপা ও ইসলামের শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর দয়ায় আমি ইমাম আব্দুল্লাহ বিন মনিব ঘোষণা করছি যে, আমি ইসলামের ১১তম খলিফায়ে রশিদ। যারা আমার এবং আমার অনুসারীদের বিরোধীতা করবেন; তাদের নরকে পাঠানো হবে।

শুক্রবার পাকিস্তানের অজ্ঞাত একটি স্থান থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ ঘোষণা দেন। হযরত মুহাম্মদ (সা.) এ ব্যাপারে আগেই ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন বলে দাবি করেন আব্দুল্লাহ বিন মনিব। এই দাবির পক্ষে একটি হাদিসও তুলে ধরেন তিনি।

আব্দুল্লাহ বিন মনিব বলেন, তিনি ইমাম মাহদিরও অভিভাবক। ইসলামের জাগরণে যোগদানের জন্য তিনি পাকিস্তানের তরুণদের প্রতি আহ্বান জানান। তার কাছে বয়াত না নিলে পাকিস্তানিরা ইসলাম থেকে খারিজ হয়ে যাবে বলেও সতর্ক করে দেন তিনি।

বিতর্কিত এই আলেম বলেন, কাশ্মির, ফিলিস্তিন ও অন্যান্য দেশের নিরপরাধ মুসলিম মানুষের প্রাণদান কখনো বিফলে যেতে পারে না। তাকে, তার পরিবারের সদস্য ও অন্যান্যদের অপমান এবং উপহাস না করার জন্যও সাধারণ মানুষকে সতর্ক করে দেন।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও সেনাবাহিনীর প্রধান কামার বাজওয়ার প্রতি আহ্বান জানান তাকে অনুস্মরণ করার জন্য। অন্যথায় সৃষ্টিকর্তার গজব অনিবার্য বলে হুঁশিয়ার করে দেন তিনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন