আইয়ুব বাচ্চুর পরিবার, বাবার মৃত্যুকালে কে কোথায়

IMG_20181018_215620.jpg

দিসিএম ডেস্ক

কোটি ভক্তদের কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন বাংলাদেশের ব্যান্ড সংগীতের কিংবদন্তি সংগীত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু।আজ বৃহস্পতিবার সকালে মৃত্যুবরণ করেছেন গুণী এই শিল্পী।সকালে হঠাৎ অচেতন হয়ে পরেন নিজ বাসায় আইয়ুব বাচ্চু।পরে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে আনার পর মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

একটি গান গেয়েছিলেন আইয়ুব বাচ্চু ফেরারি এ মনটা আমার’ গানটা কেন লেখা জানেন? এটা তার স্ত্রীকে নিয়ে লেখা। তিনি জানিয়েছিলেন,‘আমার স্ত্রীকে যখন মানে এখন যে আমার স্ত্রী, সে একসময় আমার প্রেমিকা ছিলো। তাকে অনেকদিন ওর পরিবার দেখতে দেয়নি আমাকে। ওর পরিবার থেকে আটকে রাখা হতো। ওই দুঃখ থেকে গানটা লেখা। তো ওই গানটা যে এতো বিখ্যাত হয়ে যাবে, এটা আমি কখনোই চিন্তা করিনি।’

আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী চন্দনা ও দুই সন্তান ফায়রুজ ও তাজওয়ার। তারা কোথায়? মৃত্যুকালে তার পাশে কেউ ছিলেন না? প্রয়াত জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে ও মেয়ে আগামীকাল কানাডা থেকে দেশে ফেরার পর শিল্পীর দাফন ও নামাজে জানাজার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তার ছেলে ও মেয়ে দুজনেই কানাডায় পড়াশোনা করছেন।

আইয়ুব বাচ্চুর গানের দল ‘এলআরবি’ এর ম্যানেজার শামীম আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। হাসপাতালে শিল্পীর এক ভাই রয়েছেন। তারা জানান, শিল্পীর মরদেহ স্কয়ার হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হবে।

আইয়ুব বাচ্চুর দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ঠ সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার মইনুদ্দিন রাশেদ জানিয়েছেন তার সহকারী সকালে মগবাজারের বাসায় গিয়ে তাকে অচেতন অবস্থায় দেখতে পান। এরপর তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

সাংবাদিকদের আইয়ুব বাচ্চুর ভাই এরফান চৌধুরী জানিয়েছেন, তিনি তার মগবাজারের বাসায় একাই থাকতেন। ১৬ অক্টোবর রংপুরে একটি গানের অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন আইয়ুব বাচ্চু।আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুর খবরে দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

উল্লেখ্য,কিংবদন্তি সঙ্গীত শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু ১৯৬২ সালের ১৬ আগস্ট চট্টগ্রাম জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি চট্টগ্রাম শহরের এক বনেদী হাজী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার ডাক নাম রবিন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর।জানা যায়, আগামীকাল রাজধানীর ধানমন্ডিতে প্রথম জানাজা হবে পরে জন্মস্থান চট্টগ্রামে চির নিদ্রায় সমাহিত করা হবে ।

আপনার মন্তব্য লিখুন